বিয়ের অনুষ্ঠানে আইএস হামলায় প্রাণ গেল ২৬ জনের

Print

ইরাকের তিকরিত শহরের উপকণ্ঠে একটি গ্রামে বিয়ের অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের ভেতরে ঢুকে দুই জঙ্গি আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেদেরকে উড়িয়ে দিয়েছে। এতে প্রাণ গেছে অন্তত ২৬ জনের।
তথাকথিত জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বলছে, বুধবার তিকরিতের হাজাজ গ্রামে তাদের দুই জঙ্গি ওই হামলায় অংশ নিয়েছে।

স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছেন, অনুষ্ঠানে নাচ করতে থাকা মানুষের মাঝে প্রথম বিস্ফোরণ ঘটে। এছাড়া নৃত্যরত ব্যক্তিদের যারা সহায়তা করছিলেন; তাদেরকে লক্ষ্য করে দ্বিতীয় হামলাকারী বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে ।
স্থানীয় সরকারের এক মুখপাত্র বার্তাসংস্থা এপিকে বলেন, নিহতদের অধিকাংশই শিশু। আইএস বলছে, ইরান সমর্থিত শিয়াদের একটি আধা সামরিক জোট ‘পপুলার মোবিলাইজেশন ফোর্স’র জমায়েত লক্ষ্য করে ওই হামলা চালানো হয়েছে।
আইএসের একটি চ্যানেলের খবরে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণ ঘটানোর আগে আইএসের সদস্যরা ওই জোটের সদস্যদের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছিল। এতে আহত হয়েছে অন্তত ২৫ জন।
এপি বলছে, বুধবার সন্ধ্যায় ওই বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল ইরাকের পশ্চিমাঞ্চলের আনবার প্রদেশ থেকে বাস্তুচ্যুত হওয়া একটি পরিবারে। আইএসবিরোধী একটি গোষ্ঠীর সঙ্গে পরিবারটির সম্পর্ক ছিল।
২০১৪ সালের গ্রীস্মের সময় জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস তিকরিতসহ ইরাকের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নেয়। পরের বছরের এপ্রিলে ইরাকি বাহিনীর অভিযান শহর থেকে পালাতে বাধ্য হয় আইএস। এর পর থেকেই শহরটির ভেতরে ও আশপাশের এলাকায় হামলা অব্যাহত রেখেছে আইএস। দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হুসেইনের আবাসভূমি ছিল এই তিকরিত।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 87 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ