বিয়ে করে স্বর্ণালঙ্কারসহ নগদ ১৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ

Print

মুসলমান সেজে প্রবাসী বিধবা এক মহিলাকে বিয়ে করে স্বর্ণালঙ্কারসহ নগদ ১৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে নৃপেন্দ্র দত্ত নামে এক প্রতারককে আটক করেছে পলাশ থানা পুলিশ। রোববার সকালে পলাশ উপজেলার দড়িহাওলাপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। পুলিশ জানায়, ওই এলাকার বসন্ত দত্তের ছেলে নৃপেন্দ্র দত্ত জর্ডানের একটি গার্মেন্টস কোম্পানিতে চাকরিরত অবস্থায় মুসলমান সেজে নার্গিস বেগম নামে এক বাংলাদেশি প্রবাসী বিধবা মহিলাকে বিয়ে করে। বিদেশে থাকাকালে নিজের নাম পরিবর্তন করে নুর মুহাম্মদ নামে দীর্ঘ ৭ বছর তার সঙ্গে ঘর-সংসার করে। একপর্যায়ে ব্যবসার কথা বলে ওই মহিলার জমানো ১৭ লাখ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে দুই মাস আগে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। ভুক্তভোগী নার্গিস বেগম জানান, বিদেশে কর্মরত সহকর্মীদের থেকে বাংলাদেশে যাওয়ার বিষয়টি জানতে পারি। পরে আমি বাংলাদেশে এসে তার গ্রামের বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি সে মুসলিম না। তার নাম নৃপেন্দ্র এবং সেখানে তার স্ত্রী, সন্তানও রয়েছে। তখন আমার টাকা পয়সা ফেরত চাইতে গেলে সে টাকা নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে। ভুক্তভোগী নার্গিস বেগমের বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানায়। তিনিও জর্ডানে একই কোম্পানিতে চাকরি করতেন। প্রতারক নৃপেন্দ্রের জর্ডানে থাকা অবস্থায় দাড়ি ছিল। বাংলাদেশে এসেই সে দাড়ি কেটে ফেলে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 241 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ