বেনাপোল চেকপোষ্ট কুলিশ্রমিক ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ অফিস উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মেয়র -লিটন

Print

মোঃরাসেল ইসলাম,বিশেষ প্রতিনিধি :আপানার মাথার ঘাম পায়ে ফেলে অর্থ উপর্জন করছেন এর ভিতর কোন ষড়যন্ত্র এবং মধ্যসত্বভোগি  থাক তা আমি চাই না। আপনাদের যত বাধা বিপত্তি আসুক আমি এ ষড়যন্ত্রকারিদের রুখতে আমার জীবন দিয়ে আপানাদের সাথে আছি। আপনারা আপনাদের মত নিজেদের সম্মান রেখে কাজ করেন। আমরা যে যেখানে কাজ করি সেখানকার শ্রমিক আমরা। কাজকে ছোট করে দেখা যাবে না। আমি বেনাপোল পৌরসভার একজন শ্রমিক। আপনারা দেশের একটি গুরুত্বপূর্ন জায়গায় কাজ করেন। যেখানে দেশী বিদেশী লোক এই সীমান্ত পথে যাতায়াত করে। যারা বেনাপোল শহরে পা ফেলবে এবং যারা ভারত থেকে বেনাপোল আসবে তাদের ল্যাগেজ নেওয়ার আগে ভদ্র ভাবে তাদের সালাম দিবেন, যাতে দেশী বিদেশী লোক বেনাপোল সীমান্তের কুলি শ্রমিকদের আদব কায়দা সম্পর্কে  তার এলাকায় যেলে আলোচনা করে। কারো নিকট থেকে ধোকা দিয়ে চিটারী করে টাকা নেওয়া যাবে না আপনার আচার ব্যাবহারে দেশী বিদেশী পর্যটকরা আপনাকে আপানার চাহিদার চেয়ে বেশী অর্থ দিয়ে যাবে। আর যদি আপনার আচার আচারন চিটারী বাটপরী হয় তা হলে আপনি বেনাপোলে আসা মেহমানদের নিকট থেকে অর্থ তো পাবেন না বরং আপনি বেনাপোলকে অসম্মান করলেন, জতিকে অসম্মান করলেন দেশকে অসম্মান করলেন।

তিনি বলেন বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় হাজার হাজার স্বরনার্থী ভারত যেয়ে আশ্রয় নিয়েছিল। আমরা সেই বেনাপোল শহরে বাস করি। বেনাপোলকে নিয়ে আমরা গর্ববোধ করি। আমরা অহংকার করি। সেই অহংকার আপনারা বিলুপ্তি করবেন না। তিনি বলেন আমি শ্রমিকদের অতি দ্রৃত কল্যান তহবিল তৈরী করব। প্রত্যেক শ্রমিকের আইডি কার্ড হবে। তাতে রক্তের গ্রুপ থাকবে। যদি কেউ দুর্ঘটনায় পড়ে তাকে যাতে সাথে সাথে রক্তের গ্রুপ চিহিৃত করে চিকিৎসার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া যায়। তিনি আরো বলেন আপনাদের নিয়ে যারা ষড়যন্ত্র করছে তাদের আমি চিনি কোন ষড়যন্ত্র হতে দেওয়া যাবে না । আমার জীবন দিয়ে আমার বেনাপোলের প্রিয় শ্রমিকদের সাথে থাকব। যখন যা প্রয়োজন আপনাদের জন্য আমার দরজা খোলা । আপনার চলে আসবেন। আপনাদের একটি গঠনতন্ত্র থাকবে। সে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চলবে মৃত্যুর পর ও যাতে শ্রমিকদের ছেলেমেয়ে স্ত্রী চলতে পারে তার ব্যাবস্থা করা হবে। বেনাপোল চেকপোষ্ট কুলিশ্রমিক ইউনিয়ন এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কথাগুলো বললেন  প্রধান অতিথী হিসাবে যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বেনাপোল পৌরমেয়র আশরাফুল আলম লিটন। বেনাপোল চেকপোষ্ট কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথী হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আজিবার রহমান, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্মআহবায়ক আহসান উল্লাহ মাষ্টার, আওয়ামীলীগ নেতা ইসরাফিল সরদার . সুকুমার দেবনাথ শার্শা  উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আকুল হোসইন আরিফুর রহমান দ্বিন ইসলাম বেনাপোল পৌর কাউন্সিলার জব্বার  আলী মহিলা লীগের শারমীন সুলতানা প্রমুখ।
এর আগে তিনি বেলা ৪ টার সময়  বেনাপোল পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ অফিস কাউন্সিলার জব্বার আলীর সভাপতিত্বে উদ্বোধন করেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 258 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ