বেপরোয়া জীবনযাপনে নিয়ে শুরু হয় কলহ

Print

ঢাকাইয়া চলচ্চিত্রের আইটেম গানের মডেল ‘জ্যাকুলিন মিথিলা’ ওরফে জয়া শীলের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে জানতে চায় চট্টগ্রাম পুলিশ। কেবল তাই নয়, বিয়ের দেড় বছরের মাথায় হঠাৎ করে মিডিয়া জগতে পা বাড়ানোর কারণে তার স্বামী উৎপলের সঙ্গে ঝগড়াঝাটি শুরু হয় বলে অনেকটা নিশ্চিত তারা। মিথিলার বেপরোয়া জীবনযাপন, রাত করে বাড়ি ফেরা, ফেইসবুকে নিজেকে সানি লিওন বলে আখ্যায়িত করা কিংবা খোলামেলা ছবি আপলোড করার কারণে স্বামী উৎপল রায়ের সঙ্গে এই নিয়ে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়।
তবে এই নিয়ে মিথিলার শাশুড়ি মীনাক্ষী মহাজন ও ইটালি প্রবাসী ভাবী রুপা শীল জয়াকে মানসিকভাবে প্রচুর নির্যাতন করেছেন। তারা টাকার বিনিময়ে উৎপলকে ছেড়ে দেয়ার জন্য তাকে বহুবার আপস করার কথাও জানিয়েছিলেন।

সর্বশেষ গত একমাস ধরে মিথিলার সঙ্গে তার স্বামী ঠিকানা বদলে হঠাৎ করেই যোগাযোগ বন্ধ করে দিলে এই নিয়ে হতাশ হয়ে পড়েন তিনি। যদিও ভালবেসে উৎপলকে বিয়ে করেছিলেন মিথিলা। সর্বশেষ গত ৩রা ফেব্রুয়ারি সুইসাইড নোট লিখে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি চট্টগ্রামের বাসায়।
চট্টগ্রাম বন্দর থানা পুলিশ সদস্যদের ধারণা, স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে ঘরে তুলে না নেয়ার মানসিক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে আত্মহননের পথ বেছে নেন মিথিলা।
এই ঘটনায় জয়ার বাবার দায়ের করা মামলায় পুলিশ এখন হন্যে হয়ে খুঁজছে জয়ার স্বামী উৎপল রায়, তার মা মীনাক্ষী মহাজন, চাচাত ভাই কাজল শীল, সম্ভু শীল, খালু বিদ্যালাল ওরফে বাদল, ভাবী রুপা শীল, দীপক শীল ও পঙ্কজ দাশকে।
পরিবারের এ সদস্যদের কারোরই অবস্থান গত এক সপ্তাহ ধরে বের করতে পারেননি পুলিশ সদস্যরা। উৎপলের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে অভিযান চালিয়েও সেখান থেকে পাওয়া যায়নি বিস্তারিত কোনো তথ্য।
থানার একজন এসআই জানান, মামলার পর লাপাত্তা হয়ে গেছে জয়ার স্বামী উৎপল ও তার পরিবারের লোকজন। হাটহাজারী এলাকায় থাকলেও সেখান থেকে গা-ঢাকা দিয়েছেন তারা। বর্তমানে মিথিলার স্বামী উৎপল রায় মাটিরাঙ্গায় কৃষি বিভাগে চাকরি করেন।
পাশাপাশি তিনি একজন ব্যবসায়ী বলেও পরিচিত। অন্যদিকে উৎপলের ভাবী রুপা ইটালিতে। তবে যেভাবে অনুসন্ধান ও তল্লাশি চলছে তাতে তারা সবাই ধরা পড়ে যাবেন বলে আশাবাদ পুলিশের।
এই বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বন্দর থানার এসআই মহিউদ্দিন বলেন, আসামিদের পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা না পাওয়ায় তাদের গ্রেপ্তার করা যায়নি। মামলায় আসামিদের স্থায়ী ঠিকানা ফটিকছড়ি দেয়া হলেও আসামিরা সেখানে থাকেন না। কিন্তু তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে।
অন্যদিকে জয়ার বাবা মামলার বাদী স্বপন শীল বলেন, বিয়ের পর আমার মেয়েকে জামাতা উৎপল এড়িয়ে চলতে শুরু করে। সাত বছর ধরে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। বিয়ের পর হাটহাজারীর বাসা পরিবর্তন করে অজ্ঞাত জায়গায় চলে যায় তারা। এই ঘটনায় ভেঙে পড়ে সে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, উঠতি মডেল জ্যাকুলিন মিথিলা গত ৩রা ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামে তার নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন। রেখে গেছেন সুইসাইড নোটও। বিষয়টি পারিবারিকভাবে গোপন রাখার চেষ্টা করা হলেও সর্বশেষ গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর নগর পুলিশ ঘটনা তদন্ত করতে গেলে খবরটি ফেইসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে সারা দেশে। তাকে ঢাকাইয়া চলচ্চিত্রের নামি পরিচালক পিএ কাজলের ‘চোখের দেখা’ ও ‘পানের ভেতর সুপারি’ নামের দুটি ছবির আইটেম গানে নাচতে দেখা গেছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 215 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি