বেসরকারি খাতে পেনশন, বাজেটের আগেই উদ্যোগ

Print

সরকারি খাতের পাশাপাশি বেসরকারি খাতে পেনশন চালুর বিষয়ে আগামী জাতীয় বাজেটের আগেই উদ্যোগ নেয়ার কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তবে এটি চালু হতে সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
বুধবার সচিবালয়ে ক্রয় কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেট পেশের দিনই অর্থমন্ত্রী ভবিষ্যতে সরকারি চাকুরেদের মতো বেসরকারি চাকুরেদের জন্য অবসরকালীন ভাতার পরিকল্পনার কথা জানান। তিনি জানিয়েছিলেন, বর্তমান সরকারের আমলেই এই সুবিধা চালু হবে।
গত বাজেট উপস্থাপনার সময় অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, সরকারি ও বেসরকারি চাকুরেদের মধ্যে বৈষম্য দূর করতেই এই উদ্যোগ নিতে চান তিনি।
বর্তমান সরকারের মেয়াদ আছে আর দুই বছরেরও কম। তবে অর্থমন্ত্রী বাজেট উপস্থাপন করতে আরও দুটি। এর মধ্যেই তিনি এ বিষয়ে একটি রূপরেখা দিতে চান তিনি।
পেনশনের পুরো টাকা একবারে তোলা যাবে না
চাকরি শেষে পেনশনের পুরো টাকা তুলে নেয়া কোনোভাবেই লাভজনক নয় বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী। এ জন্য এ বিষয়ে বিধিনিষেধ আরোপ হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, ‘যারা সরকারি পেনশন শতভাগ উঠিয়েছে, তারা ডুবেছেন। অনেকেই ১০০ শতাংশ উঠিয়েছে, এটা ভুল সিদ্ধান্ত। পেনশন অবসরকালীন সময়ের সিকিউরিটি। যারা ১০০ শতাংশ তুলেছেন তারা সবাই ডুবেছেন।’
অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা নতুন নতুন চেঞ্জ করি, অনেক সুবিধা যোগ করি। তারা কোন সুবিধা পাবে না। এজন্য ভবিষ্যতে যাতে সবাই সমান সুযোগ পায়, সেজন্য অর্ডার করেছি, কেউ ৫০ শতাংশের বেশি পেনশন তুলতে পারবেন না।
সরকারি কর্মচারীরা পেনশনের পুরো টাকা আর একবারে তুলে নিতে পারবেন না। তবে অর্ধেক তুলে নিতে পারবেন। বাকি অর্ধেক নিতে হবে তাঁদের মাসে মাসে।’
গত মঙ্গলবার এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ। পেনশনধারীদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত করার স্বার্থে বিধানটি চালু করা হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।
মন্ত্রী জানান, আগামী ১ জুলাই থেকে নতুন বিধান কার্যকর হবে। অর্থাৎ এ বছরের ৩০ জুন বা তারপর যাদের অবসর-উত্তর ছুটি শেষ হবে, তাঁরাই নতুন নিয়মের আওতায় আসবেন।
মন্ত্রী জানান, পেনশনাররা পাঁচ শতাংশ হারে বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট পাবেন। এটাও কার্যকর হবে আগামী ১ জুলাই থেকে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 390 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ