ব্যাংকের প্রধান ফটক আটকে হিজড়াদের চাঁদাবাজি

Print

সোনালী ব্যাংকের রাজশাহীর গোদাগাড়ী শাখায় হিজড়াদের চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার দুপুরে হিজড়াদের ১৫-২০ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল সোনালী ব্যাংকের ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করে। সেখানে কর্তব্যরত ব্যাংকের গার্ড তাদের ভেতরে ঢুকতে বাঁধা দেয়। এসময় গার্ডের কাছে তারা এক হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। ব্যাংকের ম্যানেজার মনিরুজ্জামান একশ টাকা দিয়ে তাদের যাওয়ার অনুরোধ করে। তবে হিজড়ারা কথা না শুনে ব্যাংকের প্রধান ফটকে বসে থাকে।

এসময় ব্যাংকে অন্যান্য গ্রাহকরা বাইরে দাঁড়িয়ে থাকে। ঈদকে সামনে রেখে সোনালী ব্যাংকে কাজের চাপ বেড়ে যাওয়ার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা হিমশিম খাচ্ছেন। এমন সময় হিজড়ারা ব্যাংকের প্রধান ফটক আটকে রেখে চাঁদা দাবি করায় বিপাকে পড়েন গ্রাহক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। সেই সাথে হিজরাদের ব্যংকের দরজা ঘিরে রাখায় আরও বিপাকে পড়ে। পরে ৫ শত টাকা নিয়ে তারা চলে যায়।
শুধু ব্যাংকেই নয় হিজড়ারা কয়েকটি দলে ভাগ হয়ে গোদাগাড়ী বাজারের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে টাকা আদায় করছে। টাকা দিতে রাজি না হলে দোকান ঘিরে রাখছে তারা। এতে ক্রেতারাও বিড়াম্বনায় পড়ছে। দোকানীরাও ব্যবসায়িক স্বার্থে টাকা দিয়ে বিদায় করছে। হঠাৎ করে গোদাগাড়ীতে হিজড়াদের চাঁদাবাজি বেড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীরা শঙ্কিত।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 181 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ