ব্রিজও প্রধানমন্ত্রীর নাম বলতো -রেলমন্ত্রী

Print

আল্লাহ যদি পদ্মা ব্রিজের জবান (বাকশক্তি) খুলে দিতেন, আর তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হতো, হে ব্রিজ, তোমাকে কে তৈরি করেছে, তাহলে ব্রিজ উত্তর দিত জননেত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার জাতীয় সংসদের অধিবেশন চলাকালে সাংসদদের বিপুল সমর্থনের মধ্য দিয়ে এমন কথাই বলেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক।
এ দিন জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নেন রেলমন্ত্রী। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানের ব্যাপারে তিনি বলেন, এ দেশের সাধারণ মানুষের উন্নয়নের জন্য আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৮ ঘণ্টা চিন্তা করেন।
তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর পরিবার একটি সোনার খনি। বঙ্গবন্ধু এ জাতির স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। তার কন্যা শেখ হাসিনা আজ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। এই পরিবার জাতির জন্য যে ত্যাগ স্বীকার করেছে, বাংলাদেশের কোনো পরিবার এত ত্যাগ স্বীকার করে নাই।
বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নিজের জন্য কিছু করেন না জানিয়ে মুজিবুল হক বলেন, তিনি দিনের ১৮ ঘণ্টাই এদেশের সাধারণ মানুষের উন্নয়নের জন্য চিন্তা করেন।
বাকশক্তি থাকা সত্ত্বেও বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া সত্য কথা স্বীকার করেন না জানিয়ে তিনি বলেন, আল্লাহ মানুষ ছাড়া আর কাউকে বাকশক্তি দেননি। পশু-পাখি কেউ কথা বলতে পারে না। কারণ আল্লাহ তাদের বাকশক্তি দেননি। বাকশক্তি দিয়েছেন একমাত্র মানুষকে।
জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পিকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, যদি পদ্মা ব্রিজ কথা বলতে পারত, পদ্মা ব্রিজের জবান যদি আল্লাহ দিত, আর আপনি যদি প্রশ্ন করতেন, হে ব্রিজ, তোমাকে কে তৈরি করেছে? ব্রিজ উত্তর দিত জননেত্রী শেখ হাসিনা। তার এই মন্তব্যের পর সংসদে উপস্থিত সাংসদরা টেবিল চাপড়ে রেলমন্ত্রীকে সমর্থন জানান।
এরপর বিএনপি আমলে রেলের প্রতি কোনো নজর দেয়া হয়নি উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী বাংলাদেশ রেলওয়ের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানসমূহকে উল্লেখ করেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 251 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ