ব্লু হোয়েল খুঁজে গুগল ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে বাংলাদেশ

Print

তথাকথিত ভয়ঙ্কর ‘ব্লু হোয়েল’ গেমস নিয়ে বাংলাদেশীদের আগ্রহ সব সীমাকে ছাড়িয়ে গেছে। গুগল ট্রেন্ডিং রিপোর্ট অনুসারে, গত ৩০ দিনের মধ্যে ব্লু হোয়েল লিখে সার্চের শীর্ষে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। এর পরেই রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার আরেক দেশ পাকিস্তান।
ওই গেম নিয়ে নানা রকম তথ্য ও সংবাদ গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়াতে দক্ষিণ এশিয়ার মানুষর মানুষ বেশি আগ্রহী হয়ে উঠছে বলে জানা গেছে।

‘ব্লু-হোয়েল’ শব্দটি সার্চ টার্মে খুঁজতে বাংলাদেশের সঙ্গে পাকিস্তান, ইরান, মরিশাস ও শ্রীলংকা রয়েছে। গত ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত সার্চ ডেটার ভিত্তিতে এই অবস্থান।
গুগল ট্রেন্ডিং রিপোর্ট অনুসারে গত মে মাস থেকে এই তথ্য খোঁজার হার বেড়েছে। ভারতীয় মিডিয়াতে এই গেমস সর্ম্পকে সংবাদ প্রকাশের পরে ওই আগ্রহ তৈরি হয়েছে বলে বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে।

এই গেমে একটি কমিউনিটি বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয়। এসব চ্যালেঞ্জ পূরণ করে তাদের কাছে ছবি পাঠাতে হয়। এরপর এই কমিউনিটি বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট নাম্বারসহ সকল ব্যক্তিগত-পারিবারিক তথ্য হাতিয়ে নিয়ে গেমটি খেলতে বাধ্য করে বলে জানা গেছে। সাধারণত ভাইবার-হোয়াটসঅ্যাপে এই গেমের ফাঁদ পাতা হয়। আগে গুগল প্লে স্টোরে এই গেমটি থাকলেও এখন ডার্কওয়েভে চলে গেছে।
ইন্টারনেট ভিত্তিক ব্লু হোয়েল গেমটি ২০১৩ সালে রাশিয়ায় তৈরি হয়। ফিলিপ বুদেকিন নামে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিতাড়িত এক মনোবিজ্ঞানের ছাত্র দাবি করে যে, সেই এই গেমের আবিষ্কর্তা।
রাশিয়ায় অন্তত ১৬ জন কিশোর-কিশোরী এই গেমে অংশ নিয়ে আত্মহত্যা করার পরে বুদেকিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে তার দোষ স্বীকার করে নিয়েছে। যেসব ছেলেমেয়ের সমাজে কোনও দামই নেই, তাদেরকেই সে আত্মহত্যার মাধ্যমে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দিয়ে ‘সাফ’ করতে চেয়েছিল বলে স্বীকারোক্তিতে জানায় বুদেকিন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 276 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ