মরণঘাতী ব্লু হোয়েল গেমস নেশা থেকে পুত্রকে ফেরালেন মা

Print

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি
পুত্র রিফাত (১৬) যখন ব্লু হোয়েল গেমসে ঢুকে প্রথম ধাপ শুরু করেছেন। তারপর থেকে বাড়ির লোকজনদের সাথে কথা বলেনা।
পুত্রের আচরণ বুঝতে পেয়ে চিকিৎসা দিয়ে মরণঘাতী ব্লুহোয়েল গেমস নেশা থেকে ফেরাতে পেরেছেন বলে জানান ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলা সদর কলাকোপা ইউনিয়নের শুরগঞ্জ গ্রামের প্রবাসী সালাউদ্দিন রিপনের স্ত্রী সাথী বেগম।
সাথী বেগম জানান, রিফাতের বয়স ১৬ সে নবম শ্রেনীতে পড়ছেন। গত মঙ্গলবার সকাল থেকে রিফাত বাড়ির লোকজনের সাথে কথাবলা বন্ধ করে দেয়। এমনকি তার সাথেও কথা বলেন না। ছেলের এমন অস্বাভাবিক আচরণ বুঝতে পেয়ে রিফাতকে প্রশ্ন করে তুমিকি ব্লুহোয়েল গেমসে ঢুকে ছিলে ? রিফাত চুপ করে থাকে । তার প্রশ্নের জবাব না পেয়ে পাশের বাড়ির আলম নামে এক যুবককে ডেকে বিষয়টি জানান। আলম ঘঁটনটি শুনে বুঝতে পেয়ে রিফাতকে নবাবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকরা রিফাতের সমস্যা জানতে চাইলে রিফাত জানায় যে সে ব্লুহোয়েল গেমসের প্রথম ধাপ শুরু করেছেন। এসময় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে রিফাতকে বাড়ি নিয়ে আসেন এবং রিফাতের প্রতি খেয়াল রাখেন। রিফাত এখন সুস্থ্য আছেন বলেও জানান তিনি।
রিফাতের সাথে কথা বললে সে জানায়, শনিবার দুপুরে ইন্টানেটের মাধ্যমে সে ব্লুহোয়েল গেমসে ঢুকে পড়ে। এসময় মেসেজ অফশনে ঢুকে পড়লে জানতে পারে রাত ১২ টার দিকে গেমসটি ডাউনলোড করতে হবে। সোমবার রাতে সে ব্লুহোয়েল গেমসটি ডাউনলোড করেন। এসময় ঐ সফটয়ারটিতে তার ই-মেইল আইডি, ফোন নাম্বার ও তার বিস্তারিতঠিকানা চায়। সে সেগুলো দিলে মেসেজে তাকে জানানো হয় সে তখন থেকে ঐ গেমসের সদস্য হয়েছেন। এরপর তাকে ব্লুহোয়েলের প্রথম ধাপ পালন করতে ৯ অক্টোবর রাত ১২ টা থেকে ১০ অক্টোবর রাত ১২ টা প্রর্যন্ত কারো সাথে কথা বলা যাবে না। সকালে ঘুম থেকে উঠে রাত ১২ টা পর্যন্ত প্রতি ঘন্টায় সে কি করছেন তা লিখে মেসেজ পাঠাতে হবে তাকে। এ শর্ত পূরণ করলে ১০ অক্টোবর রাত ১২ টায় গেমেসের ২য় শর্ত দেয়া হবে বলে মেসেজে জানানো হয়। সে প্রথম শর্ত পালন করতে ছিলো এমন সময় তার অভিভাবকরা বুঝতে পেয়ে মরনঘাতী খেলা থেকে ফিরে আসতে পেরেছে সে ।
রিফাত আরো জানায় সে আর কখনো এমনটি করবেন না। অতি উৎসাহিত হয়ে আমার মতআর কেউ যেন এমন মরণ খেলা না খেলে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 161 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ