‘মা’কে নিয়ে যা লিখলেন মাহিয়া মাহি

Print

আজ ৮ মে, বিশ্ব মা দিবস। মাকে ভালো কে না বাসে? যে মা দশ মাস দশদিন গর্ভে ধারণ করেছেন।

যে মা এতটা ত্যাগ স্বীকার করে সন্তানকে বড় করে তুলেছেন, সে মাকে ভালো না বেসে উপায় আছে কি? ‘মা’ কত্ত মধুর একটা ডাক। পৃথিবীতে এই একটি মাত্র ডাক আছে, যা মুহূর্তেই হৃদয় জুড়িয়ে দেয়। সে মাকে নিয়ে লিখেছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। মাহির সে লেখাটি হুবহু তুলে ধরা হলো

‘আম্মু তুমি জানো গুছিয়ে লিখতে পারি না। তবে অনুভূতি প্রকাশ করতে পারি স্বাধীনভাবে। কেমন হবে ভাবি না কারণ তোমার কাছে ভেবে কিছু প্রকাশ করতে চাই না। জীবনের অনেক বসন্ত পার করে দিলাম। তোমাকে একটা চিঠি লিখতে পারলাম না। তার

কারণ সম্বোধন সঙ্কট। তোমাকে কী সম্বোধন করব তা খুঁজে পাই না মাঝে মাঝে। তুমি আমাকে আপন পেটে ধারণ করেছ। সবাইকে আমি খুব সুন্দর শব্দ দিয়ে সম্বোধন করি। কিন্তু তোমার বেলায়…থাক সেসব কথা। আমার জন্য তুমি অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছ। আমার জন্য অনেক কথা শুনেছ। অনেক বিপদের মধ্যে আমাকে সামলিয়ে রেখেছ। খুব মিস করি তোমাকে। আম্মা তোমাকে কোনোদিন বলিনি, মা আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি। কিন্তু আজ বলছি। কাজেকর্মে সবসময় তুমি আমার সাথেই থাকো।

মা আমি যখন অসুস্থ হই দিনরাত তুমি আমার সেবা করো। রাত জেগে আমার পাশে বসে থাকো। আল্লাহর কাছে দোয়া করো আমি যেন খুব তাড়াতাড়ি সেরে উঠি। আম্মু তুমি তো জানো, যখন বাসায় থাকি তখন আমার একা একা থাকতে ভালো লাগে। এমনকি আমার রুমের দরজা লাগানো থাকে। আমার মতো করে টিভি দেখি কিংবা গান শুনি। আর না হলে অলস সময় পার করি। আর আমি যদি শুটিং শেষ করে রাতে যে কয়টার সময় বাসায় ফিরি না কেন? সে সময় তুমি আমার রুমের দরজায় গিয়ে নক করো। কিংবা নক করা ছাড়াই ঢুকে যাও। এ নিয়ে আমি তোমাকে অনেক কথা শোনাই। কেন তুমি আমার রুমে না বলে ঢুকেছ? এ নিয়ে খুব খারাপ আচরণ করেছি দু-একবার। একদিন তুমি আমার সাথে রাগ করে বলেছিলে, ‘একদিন আসবে যেদিন আমি থাকব না, সেদিন আর দরজায় কেউ নক করবে না। ঢুকব না তোর রুমে।’ আম্মু জানো, তোমার ওই অভিমানী কথায় আমি কতটুকু কষ্ট পেয়েছি। আমার কেন জানি মনে হয় শুধু আমি তোমার সাথে রাগ করব কিন্তু তুমি নাহ।’

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 28 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ