মুক্তামনির অস্ত্রোপচার শেষ, ভালো আছে

Print

বিরল রোগে আক্রান্ত মুক্তামনির শরীরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে অস্ত্রপচার শেষ হয়েছে। তার হাতটি রেখেই অস্ত্রোপচার শেষ করেছেন চিকিৎসকরা।
শনিবার বেলা ১১টা ১০ মিনিটে তার অস্ত্রোপচার শেষ হয়। এর আগে সকাল ৯টায় তার হাতে অস্ত্রোপচার শুরু হয়। এরও আগে মুক্তামনিকে সকাল ৮টা ২০ মিনিটে অপারেশন থিয়েটারে নেয়া হয়।

বর্তমানে সে ভালো আছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন।
ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্লাস্টিক সার্জন ও একই প্রতিষ্ঠানের অ্যানেসথেশিয়া বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎকরা এই অস্ত্রোপচারে অংশ নেন।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন সাংবাদিকদের বিষয়টি জানিয়েছেন।
এর আগে গত মঙ্গলবার সকালে মুক্তামনির চিকিৎসার জন্য গঠিত ১৩ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড তার বায়োপসি রিপোর্ট পর্যালোচনা করে। এর পরই অস্ত্রোপচারের এ দিন ধার্য করা হয়।
ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, মুক্তামনির জীবন রক্ষার্থে যদি তার রোগাক্রান্ত হাতটি কেটে ফেলতে হয়, তবে তা-ই করবেন তারা। অবশ্য হাতটি রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করা হবে।
এর আগে গত শনিবার সকালে মুক্তামনির বায়োপসি করা হয়।
গত মাসে সাতক্ষীরা থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য মুক্তামনিকে সরকারি উদ্যোগে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুটির খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশের পর সরকারের পক্ষ থেকে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 140 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি