ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নতুন মাইলফলকের ছোঁয়া

Print


ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
নতুন মাইলফলকের ছোঁয়ায় শিশু চিকিৎসাবৃহত্তর ময়মনসিংহে শিশু চিকিৎসা জনগণের দোরগোড়ায় পোঁছাতে এবং তা বাস্তবায়ণ নিশ্চিত করতে সফলভাবে এগিয়ে যাচ্ছে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৫ নং ওয়ার্ডে কর্মরত চিকিৎসক ও সংশ্লিষ্ট স্টাফগণ।

এই ওয়ার্ডের বিভাগীয় প্রধান ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাক্তার আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে ও নির্দেশনায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু চিকিৎসার অর্জনকে উন্নত চিকিৎসার উদাহরণ হিসাবে বিবেচনা করছেন বৃহত্তর ময়মনসিংহবাসী। পরিস্কার- পরিচ্ছন্ন ও পরিপাটি ঐ ওয়ার্ডে দেখা যায়, শিশুদের  চিকিৎসা নিতে আসা মায়েদের মাইকিং করে ডেকে এনে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে তাদের শিশুদের ।শিশুরা ভূমিষ্ট হওয়ার পর থেকেই পাচ্ছে মাতৃদুগ্ধ পানের সুযোগ ।

এটাকে এই যুগান্তকারী উদ্যোগ বলে মনে করছেন ময়মনসিংহবাসী ।দীর্ঘমেয়াদি ও ব্যয়বহুল এমন রোগের শিশু চিকিৎসা হচ্ছে ২৫নং ওয়ার্ডে । সম্পূর্ণ বিনা খরচায় হাজার হাজার শিশু এখন সুস্থ হয়েছে আবার অনেকে সুস্থের পথে। এভাবে অনেক শিশু জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ পাচ্ছে ২৫ নং ওয়ার্ডে ।

অধ্যাপক ডাক্তার আনোয়ার হোসেনের নির্দেশনায় এই ওয়ার্ডে সার্বক্ষণিক কর্মরত আছেন, ডাক্তার নজরুল ইসলাম, ডাক্তার আইয়ুব আলীম ডাক্তার মানিক মজুমদার, ডাক্তার শাকিলা । নার্স শান্তিলতা দোপু, মোমেনা আক্তার, শান্তা । অফিস সহায়ক শফিকুল ইসলাম, আরিফ উদ্দিন, শহীদুল ইসলাম , শহীদুল ইসলাম(২) শওকত আলী লেবু। আয়া শাহনাজ এবং নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার আব্দুল লতিফ ও নজরুল ইসলাম ।এখানে শিশুরা সাধারণ রোগের পাশাপাশি মেনিনজাইটিস, এনক্যাফালাইটিস, গুলেন ব্যারি সিনড্রোম (জিবিএস), মারাত্মক নিউমোনিয়া, শিশুদের জটিল হৃদরোগ, শ্বাসকষ্ট, ব্রংকিউলাইটিস নিউমোনিয়াসহ নানা জটিল রোগের চিকিৎসাসুবিধা পাচ্ছে ।

চিকিৎসাসেবা নেয়া অভিভাবকরা বলছেন, শিশু রোগীদের জন্য এওয়ার্ডেও ডাক্তার এবং স্টাফরা একটি মাইলফলক । এখানে সাধারণসহ জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়া শিশুরা উন্নত ও আধুনিক চিকিৎসা পাচ্ছে। তা ছাড়া জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হওয়া রোগীর মধ্যে নব্বই শতাংশই ভালো হচ্ছে।
এখানকার চিকিৎসক ও স্টাফদের আন্তরিকতা এবং রোগীদের যথাযথ নার্সিংয়ের কারণে সরকারি পর্যায়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবায় সাফল্য এসেছে ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সহ¯্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য (এমডিজি) অর্জনের ক্ষেত্রে শিশু মৃত্যুর হার হ্রাস কমিয়ে রোগীরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। অধ্যাপক ডাক্তার আনোয়ার হোসেন বলেন, স্বাস্থ্যসেবা দিন দিন সাফল্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও বিশ্ব মানের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগ সকল জটিল অস্ত্রোপচারের ক্ষেত্রে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করে আসছে।

শিশু সন্তানকে হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে নিয়ে যাওয়ার আগে শতভাগ মায়েরাই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, সব ডাক্তার এবং স্টাফরা তাদেরকে সাহায্য করেছেন। তারা আমাদের বাচ্চাদের ভালোবেসে চিকিৎসা দিয়েছেন। তাই আল্লাহর রহমতে আমাদের বাচ্চারা আজ সুস্থ।

সুবিধাভোগীরা জানান, অধ্যাপক ডাক্তার আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে এ হাসপাতালে , বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা হেলথ কেয়ার’ কর্মসূচি বাস্তাবায়িত হচ্ছে । বিনামূল্যে আধুনিক চিকিৎসা পরিষেবার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ডাক্তার অধ্যাপক আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে নিরলশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ডাক্তার ও স্টাফরা । তাদের উদ্দেশ্য তাৎপর্যপূর্ণ এবং বিনা খরচে চিকিৎসা পরিষেবা পাওয়ার অণুকরনীয় অনুসরনীয় দৃষ্টান্ত ।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 81 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ