গার্ডিয়ানে প্রকাশিত স্টিভ বেলের আঁকা কার্টুন

ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর প্রথম কোনো বিদেশি নেতা হিসেবে বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করতে একদিনের সফরে ওয়াশিংটন যান থেরেসা মে।

তাদের বৈঠকের দিন যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র ‘বিশেষ সম্পর্ক’ বোঝাতে যুক্তরাজ্যের গার্ডিয়ান পত্রিকা ও পত্রিকাটির অনলাইন ভার্সনে প্রকাশিত স্টিভ বেলের আঁকা একটি কার্টুন নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র বিতর্ক।

কার্টুনটিতে থেরেসা মে’র সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্প পায়ুকামে লিপ্ত, এমন দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এটিকে নারীর জন্য অবমাননাকর উল্লেখ করে গার্ডিয়ান ও স্টিভের সমালোচনা করছেন অনেকে।

কার্টুনটিতে থেরেসা মে’র পায়ে ছিল বাঘের শরীরের ছাপযুক্ত জুতা। সম্প্রতি সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামে এরকম একটি জুতা পরে হাজির হয়েছিলেন থেরেসা। ওই সম্মেলনে তার জুতা অনেকের দৃষ্টি কাড়ে।

মার্টিন ডুবনে নামে একজন টুইটারে লিখেছেন, ট্রাম্পের সঙ্গে এমন কার্টুন একে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীকে অপমান করেছেন স্টিভ।

রেবেকা হোবার্ট নামে একজন লিখেছেন, জিনিসটি আমি পুনরায় টুইট করছি না। নারী হিসেবে এ কার্টুন দেখে আমি ব্যথিত হয়েছি।

ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের আগে থেকেই থেরেসা মে দুই দেশের মধ্যে বিরাজমান বিশেষ সম্পর্কের কথা বারবার উল্লেখ করে আসছিলেন। বৈঠকের পর দুই নেতার যৌথ সংবাদ সম্মেলনেও এ বিশেষ সম্পর্কের কথা উঠে আসে।