যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে’

Print
213315barnicat_103246
বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া স্টিফেন্স ব্লুম বার্নিকাট আজ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র সরকার উভয় দেশের অর্থনীতির পারস্পরিক প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যে বাংলাদশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে।
ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম অব বাংলাদেশ (আইবিএফবি) এর বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ১০ বষপূর্তি অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে রাষ্ট্রদূত বলেন, ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির মাধ্যমে দুটি দেশের অর্থনীতি আরো জোরদার করার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে।
বার্নিকাট বলেন, বাংলাদেশ বিভিন্ন খাতে অগ্রগতি লাভ করায় জীবন যাত্রা ও শিক্ষার মান বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, ‘আমি খুবই গর্বিত যে, যুক্তরাষ্ট্র এই সফল যাত্রায় বাংলাদেশের একটি শক্তিশালী অংশীদার।
তিনি শিল্প খাতে নিরাপদ কাজের পরিবেশ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দুটি দেশের মধ্যে অংশীদারিত্ব আরো জোরদার এবং অর্থনীতির যাত্রা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে সকল খাতে স্বচ্ছতা আরো জোরদার করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।
তিনি আকর্ষনীয় ব্যবসার পরিবেশ সৃষ্টির ওপর গুরুত্ব আরোপ করে আরো বলেন, স্বচ্ছতা, বিধি-বিধান এবং আইন অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের জন্য নি:সন্দেহে জরুরি বিষয়। স্বচ্ছতার সঙ্গে ব্যবসায় নিয়োজিত কোম্পানীগুলোকে সিদ্ধান্ত গ্রহন এবং পণ্য ও সেবার উচ্চ মান বজায় রাখতে হবে।
বার্নিকাট কর ব্যবস্থা, অবকাঠামা উন্নয়ন, বিদ্যুৎ উৎপাদনসহ বিনিয়োগ পরিস্থিতি আরো নির্ভরযোগ্য করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি এ ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি খাতের একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।
ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই) সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমদ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন।
আইবিএফবি সভাপতি হাফিজুর রহমান খান উদ্বোধনী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।
চলতি অর্থবছরের প্রথম নয় মাসে ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হার অর্জনের উল্লেখ করে আবদুল মাতলুব আহমদ বলেন, বাংলাদেশ আর মোটেও তলাবিহীন ঝুড়ি নয়। ২০২১ সালের মধ্যে একটি মধ্যম আয়ের দেশ হওয়া কোন স্বপ্ন নয়, বরং একটি সম্ভাবনা।
তিনি বলেন, সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নারীদের আরো ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে এক অঙ্কের সুদে নারী উদ্যোক্তাদের ঋণ প্রদান সহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।
হাফিজুর রহমান খান বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের তৈরী পোষাকের বৃহত্তম একক বাজার এবং বাংলাদেশে একক বৃহত্তম বিনিয়োগকারী।
তিনি আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক কেবল স্বাস্থ্য, শিক্ষা, গণতন্ত্র ও সুশাসন জোরদার করার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং এই বন্ধুত্বের সম্পর্ক জ্বালানি, পণ্য ও সরবরাহ চেইন, নিরাপত্তার ক্ষেত্রসহ আমদানী-রপ্তানি ও বিনিয়োগের মাধ্যমে বৃদ্ধি পাচ্ছে।
তিনি আশা প্রকাশ করেন, দক্ষ মানব সম্পদ গড়ে তোলার লক্ষ্যে বাংলাদেশী তরুণদেরকে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দানের ক্ষেত্রে আরো সুযোগ-সুবিধা দিবে। – বাসস।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 25 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ