যেভাবে চুরি হতে পারে মোবাইলের পিন

Print

ফাঁদ পেতে বা ফিশিং আক্রমণসহ নানা কৌশলে মোবাইল ফোনের পিন বা পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নিতে পারে দুর্বৃত্তরা। এবার আরেকটি নতুন কৌশলের সন্ধান পেয়েছেন গবেষকেরা।

গবেষকেরা সতর্ক করে বলেছেন, স্মার্টফোনে পাসওয়ার্ড বা পিন টাইপ করার পর স্ক্রিনের ওপর যে তাপমাত্রা থেকে যায় তার পথানুসরণ করে বা প্যাটার্ন অনুসরণ করে গোপন কোড জানা সম্ভব। এই কোড চুরি করা সহজ। এ জন্য শুধু থার্মাল-ইমেজিং ক্যামেরার দরকার পড়ে। এতে স্মার্টফোন স্ক্রিনের কোন অংশটিতে চাপ দেওয়া হচ্ছে, তা থার্মাল-ইমেজিং ক্যামেরায় ধরা পড়ে। শুধু টাইপ করার সময়েই নয়, টাইপ শেষ করার ৩০ সেকেন্ড সময় পরেও ওই স্মার্টফোন থেকে পিন হাতিয়ে নেওয়া সম্ভব। যুক্তরাষ্ট্রর সংবাদমাধ্যম দ্য আটলান্টিকের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
এ বছরের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে হিউম্যান-কম্পিউটার ইন্টারঅ্যাকশনস-বিষয়ক সম্মেলনে স্টুটগার্ট ও জার্মানির লুডউইগ ম্যাক্সিমিলান ইউনিভার্সিটি অব মিউনিখের গবেষকেরা পিন হাতিয়ে নেওয়ার নতুন কৌশল বিষয়ে গবেষণাপত্র উপস্থাপন করবেন।
গবেষকেরা বলছেন, জ্ঞানভিত্তিক অথেনটিকেশন স্কিম হিসেবে পিন ও প্যাটার্ন বহুল ব্যবহৃত। কিন্তু এখন থার্মাল ক্যামেরা সহজলভ্য ও হাতের নাগালে চলে আসছে। তাই মোবাইল ডিভাইসে ব্যক্তিগত গোপনীয়তার বিষয়গুলোর ক্ষেত্রে ঝুঁকি বাড়ছে।
থার্মাল ক্যামেরা ব্যবহার করে থার্মাল আক্রমণ চালাতে পারে দুর্বৃত্তরা। পিন টাইপের পর তা ট্রেস করে ওই পিন পেয়ে যেতে পারে তারা। দেখা গেছে, পিন টাইপ করার ১৫ সেকেন্ডের মধ্যে থার্মাল ক্যামেরায় ছবি তোলা হলে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত নিখুঁতভাবে তা আবার বের করা যায়। ৩০ সেকেন্ড পর তা ৮০ শতাংশে নেমে আসে। তবে ৪৫ সেকেন্ড পার হয়ে গেলে নিখুঁত পাসওয়ার্ড বের করার সম্ভাবনা ৩৫ শতাংশ হয়ে যায়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 88 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ