যে কাজগুলো বিমানে করবেন না

Print
যে কাজগুলো বিমানে করবেন না
বিমানযাত্রা আধুনিক জীবনের নিয়মিত অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে। আকাশপথের যাত্রা নির্ঝঞ্ঝাটে সম্পন্ন করতে কিছু বিষয় মেনে চলতে হয়। রিডার্স ডাইজেস্ট অবলম্বনে শীর্ষ ৫টি নির্দেশনা ইত্তেফাকের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল:
বিমানে খালি পায়ে হাঁটবেন না: বিমানের ফ্লোরে আধ-খাওয়া খাবার, ভাঙ্গা কাঁচের টুকরো থেকে শুরু করে বমি এমনকি রক্তও পড়ে থাকতে দেখেছেন অভিজ্ঞ ফ্লাইট অ্যাটেন্ডেন্টরা। ২৪ বছর ধরে ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্টের কাজ করা লিন্ডা ফার্গুসন বলেন, কখনো খালি পায়ে বাথরুমে বা গ্যালারি এরিয়াতে হাঁটবেন না কারণ বিমানের মেঝেতে জীবাণুর ছড়াছড়ি। ভাঙা কাঁচে আপনার পা কেটে যেতে পারে।
বিমানের বরফ গ্রহণ করবেন না: এক গবেষণায় দেখা গেছে ৩২৭টি বিমানের মাত্র ১৫ শতাংশের পানি সরবরাহের স্বাস্থ্য মান বজায় রাখা হয়। বিমানে খাবার পানি সাধারণত বোতলে করে সরবরাহ করা হয় কিন্তু বরফের টুকরোগুলো বিমানের পানি সরবরাহ থেকেই করা হয়।
কন্টাক্ট লেন্স খুলে ফেলুন: বিমানের কেবিনের আবহাওয়া শুষ্ক, যার ফলে চোখে অস্বস্তি তৈরি হতে পারে। এছাড়া কন্টাক্ট লেন্স পরে ঘুমিয়ে পড়লেও সমস্যা হতে পারে।
প্রচুর পানি পান করুন: বিমানের কৃত্রিম আবহাওয়ায় জলীয়বাষ্পের পরিমাণ কম থাকে। বার বার গলা শুকিয়ে আসে। এই সমস্যা এড়াতে প্রচুর পানি পান করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।
পুরো ফ্লাইট সিটে বসে কাটাবেন না: বিমান দীর্ঘক্ষণ বসে থাকলে পায়ের শিরায় রক্ত জমাট বাধার ঝুঁকি তৈরি হয় যা ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিস নামে পরিচিত। এই জন্য পুরো ফ্লাইটে শুধু সিটে বসে না থেকে হাটাহাটি করা (অবশ্যই জুতা পরে) বা দাঁড়িয়ে আড়মোড়া ভাঙলে এই ঝুঁকি হ্রাস পায়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 123 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ