রাবিতে ছাত্রলীগ কর্মী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে ধাওয়া

Print


আহমেদ ফরিদ, রাবি প্রতিনিধি: তুচ্ছ ঘটনায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় চারকলা অনুষদের দুই শিক্ষার্থী মারধরেরও শিকার হয়। গতকাল সোমবার বিকেল ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারকলা অনুষদের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার দুই শিক্ষার্থীর নাম পল্লব ও মুন্না। পল্লব বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃৎশিল্প ও ভাস্কর্য বিভাগ এবং মুন্না গ্রাফিক ডিজাইন, কারুশিল্প ও শিল্পকলার ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বেলা আড়াইটার দিকে চারুকলা চত্বরের এক খাবারের দোকানে তরকারির বাটি এগিয়ে দেয়া নিয়ে পল্লব ও মুন্নার সঙ্গে বাকবিত-া হয় কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মীর। সেই ঘটনার জের ধরে চারকলা অনুষদের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা চারুকলা অনুষদের সামনে অবস্থান নেয়। সেখানে চারকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরা লাঠি নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এতে স্বরুপ নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীর পা কেটে রক্ত বের হয়।

খবর পেয়ে ঘটনার মীমাংসা করার জন্য ঘটনাস্থলে যান বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু। তারা চারকলা অনুষদের শিক্ষার্থীদের নিয়ে বৈঠকে বসেন। সেখানে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী পল্লব ও মুন্নার ওপর হামলা চালায়। এসময় পল্লব ও মুন্নাসহ চারকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পালানোর সময় ছাত্রলীগকর্মীরা তাদের ধাওয়া করলে তারা চারকলা অনুষদের পাশে একটি পুকুরে পড়ে যান।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করে রাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুন বলেন, ঘটনাটি শোনার পর সেখানে আমি ও সভাপতি যাই। তাদের মধ্যে একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়েছিলো মীমাংসা করে দিয়েছি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 133 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ