রাবিতে ফারুক হত্যা দিবস পালিত

Print

আহমেদ ফরিদ, রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী ফারুক হোসেন হত্যার মামলায় অভিযুক্তদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে রাবি শাখা ছাত্রলীগ।  বুধবার বেলা ১২টার দিকে ছাত্রলীগের দলীয় টেন্ট থেকে একটি র‌্যালী নিয়ে শহীদ ফারুক হোসেনের স্মৃতি বিজড়িত শাহ্ মখদুম হলের সামনে তার অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হন।
রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও ফারুকের বোন আসমা বেগম।
এসময় বক্তারা বলেন, গনিত বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী ফারুককে ২০১০ সালে ৮ই ফ্রেবুয়ারী প্রশাসনের নাকের ডগায় নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। আজ ফারুক হত্যার ৭ বছর পেরিয়ে গেলেও আমরা এখনো এর কোন সুষ্ঠু বিচার পায়নি। আমরা দ্রুত আমাদের ভাই হত্যার বিচার চাই। এসময় ফারুক হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামীদের অতি দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের আওতায় আনা এবং তাদের বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র বাতিলের দাবি জানান। এছাড়াও বক্তারা তার বোনের চাকুরী স্থায়ীকরণ এবং শহীদ ফারুক স্মরণে স্মৃতিফলক নির্মানের দাবি জানান।
সমাবেশে অন্যানের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন হল ইউনিটের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বাদ আসর শহীদ ফারুক সহ সকল শহীদদের স্মরণে এস এম হল অডিটোরিয়ামে মিলাদ-মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে শিবির কর্মীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে এসএম হলের ছাত্রলীগ কর্মী ফারুককে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ পার্শ্ববর্তী সৈয়দ আমীর আলী হলের ম্যানহোলে ফেলে দেয়। পরদিন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম অপু জামায়াত-শিবিরের ৩৫ নেতাকর্মীর নামসহ অজ্ঞাত পরিচয় আরো শতাধিক জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে নগরীর মতিহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 191 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ