শিক্ষামন্ত্রীর আহ্বান পাঠ্যবইয়ের ভুলের প্রচার না করার

Print

পাঠ্যবইয়ের ত্রুটি নিয়ে বেশি প্রচার না করতে গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেন, ‘পাঠ্যপুস্তক বইয়ের ভুল বেশি প্রচার হলে শিশুরা পড়ার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে। ভুল যা হওয়ার তা হয়ে গেছে, কিন্তু এই ভুলকে বড় করে না দেখে ছোট শিশুদের জন্য ভাল কি করা যায় সে বিষয়ে এগিয়ে আসুন।’
চলতি শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ে ভুলসহ সামগ্রিক বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

পাঠ্যপুস্তকে ভুলের দায় নিজের কাঁধে নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতে নির্ভুলভাবে বই ছাপানোর কাজ আন্তরিকতার সঙ্গে সস্পন্ন করা হবে। তবে কখনোই শতভাগ নির্ভুল বই ছাপানো সম্ভব কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন তিনি।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, বইয়ে ছোটখাটো ভুল থাকতে পারে। কিন্তু এবারের মতো ভুল কোনোভাবে মেনে নেয়া যায় না। এর পেছনে যদি কোনো চক্রান্তকারী থাকে তাকে কোনোভাবেই ছাড় দেয়া হবে না। চক্রান্তকারীকে খুঁজে বের করা হবে। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের দুই কর্মকর্তাকে ওএসডি করা হয়েছে।
সারাবছর তৎপর যে শিক্ষামন্ত্রণালয়, বছর শেষে পাঠ্যপুস্তকে এমন ভুল কী করে হল- এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী কিছু অপ্রস্তুত হয়ে যান। বলেন, ‘এমন প্রশ্ন না করে। আমাদের কাজে আপনারা সহযোগিতা করুন।’
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সুকুমার রায়ে ‘আদর্শ ছেলে’ কবিতার প্রথম লাইনেই ভুল ছাপা হওয়ায় মন্ত্রী দুঃখ প্রকাশ করেন। বলেন, যে এই কবিতা না জানেন তার পাঠ্যপুস্তক প্রস্তুতের সঙ্গে থাকার কোনো যোগ্যতাই নেই।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 142 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি