শিগগিরই খুলনায় ভারতীয় সহকারী হাইকমিশন চালু

Print

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় ডেপুটি হাইকমিশনার ড.আদর্শ সাইকা বলেছেন, খুব শিগগিরই খুলনায় ভারতীয় সহকারী হাইকমিশন অফিস চালু করা হবে।
তিনি শনিবার বেলা সাড়ে ৩টায় নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের সভাকক্ষে একমত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

ভারত-বাংলাদেশ বন্ধু প্রতীম দেশ উল্লেখ করে আদর্শ সাইকা বলেন, দু’দেশের জনগণের মধ্যে নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। সেই সম্পর্কের বন্ধন যে কতটা গভীর তা প্রমাণ করে বাংলাদেশ-ভারত লোকজন যাতায়াত বৃদ্ধির উপর । গতবছর দু’দেশের মধ্যে প্রায় ১৫ লাখ লোক যাতায়াত করেছে। দক্ষিণাঞ্চলের লোকজনের ভারতে যাতায়াতের সুবিধার লক্ষে খুলনা ও যশোরে ভিসা সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। খুব শিগগিরই খুলনায় ভারতীয় সহকারী হাইকমিশন অফিস চালু করা হবে। ভিসা প্রাপ্তিও সহজীকরণ করা হয়েছে এবং আরো সহজ করা হবে। খুলনা-কলকাতা ট্রেন ও বাস চালুর ফলে দু’দেশের জনসাধারণ সহজে ও দ্রুত যাতায়াত করতে পারবে।
ভারতীয় ডেপুটি হাইকমিশনার ড.আদর্শ সাইকা আরো বলেন, ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মূখার্জীর প্রয়াত স্ত্রী নড়াইলের মেয়ে শুভ্রা মূখার্জীর কথা স্বরণ করে বলেন, তিনি (শুভ্রা মূখার্জী) দু’দেশকে আরো বেশি আপন করে তুলেছেন।
নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের অধ্যক্ষ জ্ঞান প্রকাশানন্দ মহারাজের সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনের রেলওয়ে উপদেষ্টা দিবাঞ্জন রায়, নড়াইলের জেলা প্রশাসক মো. এমদাদুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড. সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, নড়াইল জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের সভাপতি এড. সুবাস চন্দ্র বোস, সদর উপজেলা সহকারি কমিশনার( ভূমি) শিমুল কুমার সাহা প্রমুখ।
এ সময় রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে তিনি ভারত সরকারের সহায়তায় আশ্রম ৭৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নড়াইল রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 67 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ