শিশুর গলায় কিছু আটকে গেলে

Print

শিশুকে মাছ খাওয়াচ্ছেন। এসময় অসাবধানতাবশত মাছের কাঁটা শিশুর গলায় বেঁধে গেল।
শুধু তাই নয় অনেক সময় কোনো কারণে শিশুদের গলায় ধাতব মুদ্রা বা পয়সা, খেলনার ছোট অংশ,মাংসের হাড়,বোতাম ও সেফটিপিন আটকাতে পারে। তখন কি করবেন?

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ড. সাখাওয়াত আলম বলেন, শিশুরা খেলার সময় কোনোকিছু মুখে দিলে তা গলায় আটকে যেতে পারে।
এটি মেডিকেল ইমারজেন্সি। এমতাবস্থায় রোগীকে যত শিগগির সম্ভব হাসপাতালের জরুরি বিভাগে অথবা নিকটস্থ নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞের কাছে নিয়ে যেতে হবে।
* গলবিল ও খাদ্যনালীর সংযুক্ত স্থান হল খাদ্যনালীর সবচেয়ে সংকীর্ণ জায়গা। এখানেই বেশিরভাগ জিনিস আটকায়। এছাড়া খাদ্যনালীতে চারটি সংকুচিত পয়েন্টে যে কোনোকিছু আটকাতে পারে।
* গলায় কিছু আটকালে খুব ছোট্ট শিশুরা গলায় ইশারা করবে, কান্না করবে, অতিরিক্ত লালা বের হবে বা চোখ উল্টে দিতে পারে। বড়রা গলায় কিছু আটকে যাওয়ার কথা বলবে।
* গলায় কিছু আটকালে ঢোক গিলতে অসুবিধা হতে পারে, গলাব্যথা হতে পারে, বমি বমি ভাব হতে পারে।
* এ ক্ষেত্রে গলা বা বুকের এক্স-রে করে দেখা হয়, ইসোফ্যাগোস্কপির মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায়।
* রোগীকে অবশ্যই হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে। এরপর সম্পূর্ণ অজ্ঞান করে ইসোফ্যাগোস্কপির (এন্ডোসকপি) মাধ্যমে খাদ্যনালীতে আটকানো জিনিস বের করতে হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 179 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ