সব দলকে ভোটে আনতে চেষ্টা চলছে

Print

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। জাতীয় নির্বাচনের আগে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে সময় বুঝে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

বিকেলে খুলনা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় যোগ দেয়ার আগে গণমাধ্যমকর্মীদেরকে এ কথা জানান সিইসি।

নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবি পূরণ না হওয়ায় ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির জাতীয় নির্বাচন বর্জন করে বিএনপি-জামায়াতের নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট এবং সমমনারা।

দশম সংসদ নির্বাচন পরিচালনাকারী রকিবউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষে গত ফেব্রুয়ারি কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বে নতুন কমিশনকে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

নতুন কমিশন এরই মধ্যে আগামী জাতীয় নির্বাচনের পথ নকশা ঘোষণা করে কাজ করছে।

নাগরিক সমাজ, রাজনৈতিক দল, নারী নেত্রী, সাবেক নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গেও মত বিনিময় করেছে বর্তমান কমিশন, যাদের মধ্যে বিএনপিও রয়েছে।

বিএনপি বর্তমান কমিশনকে স্বাগত জানায়নি, তবে রকিবউদ্দিন কমিশনকে যে ভাষায় তারা আক্রমণ করত, সে ভাষায় এই কমিশনকে নিয়ে কথা বলছে না তারা। আবার দশম সংসদ নির্বাচনের আগের মতোই নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের দাবি জানিয়ে যাচ্ছে তারা। সরকার আবার সে দাবি মানা হবে না বলে তার অবস্তানের ঘোষণা দিয়েছে। এই অবস্থায় আগামী নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণের বিষয়ে এখনও সুনির্দিষ্ট কোনা ঘোষণা এখনও আসেনি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 53 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ