সমঝোতা হচ্ছে শিগগিরই, বাংলাদেশে আসছে অস্ট্রেলিয়া!

Print

অবশেষে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার বনাম বোর্ডের মধ্যকার দ্বন্দ্বের বরফ গলতে শুরু করেছে। ক্রিকেটারদের সংগঠন এসিএ’র সঙ্গে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) টানা দুই দিনের আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে বলে জানা গেছে।
ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইট জানিয়েছে, শিগগিরই দুই পক্ষের মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি সাক্ষরের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। অন্যদিকে, এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হলে স্মিথদের বাংলাদেশ সফর নিয়ে সব সংশয় দূর হয়ে যাবে বলে নিশ্চিত করেছে তারা।

টানা প্রায় একমাস ধরে দুই পক্ষের বিবাদের মধ্যে বিশ্ব্যাপী আলোচনায় ছিল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট। বোর্ডের সঙ্গে লভ্যাংশ ইস্যুতে নতুন চুক্তিতে সই করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। এমতাবস্থায় গত ৩০ জুন পর্যন্ত চুক্তি সাক্ষরের সময় বেঁধে দিয়েছিল সিএ। কিন্তু ওই সময়ের মধ্যে চুক্তি সই না করায় আন্দোলনরত ২৩০ নারী ও পুরুষ ক্রিকেটার চাকরি হারান। এর প্রতিবাদস্বরূপ দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বয়কট করে অজি ‘এ’ দল। এছাড়া জাতীয় দলের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সফর বয়কটের ঘোষণা দেওয়া হয়।
সমঝোতার পরিবর্তে এরপর চলে দুই পক্ষের বিবৃতি-পাল্টা বিবৃতি। তবে, গত সোমবার প্রায় এক সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর নতুন করে আলোচনা শুরু করে দুই পক্ষ। বৈঠকে বোর্ডের প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড এবং ক্রিকেটারদের পক্ষে ছিলেন এসিএ’র প্রধান নির্বাহী অ্যালিস্টার নিকোলসন। বৈঠকে ক্রিকেটারদের দাবি করা লভ্যাংশের অঙ্কটা কিছুটা কমিয়ে নিয়ে আসার কথা বলা হয়েছে এসিএ’র পক্ষ থেকে। এতেই বরফ গলতে শুরু করেছে।
তবে দুই পক্ষের সমঝোতা চুক্তি কবে নাগাদ হবে, সেটি এখনো জানা যায়নি। তবে সময়টা যে খুব শিগগিরই আসছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। দুই পক্ষই নিজ নিজ অবস্থান থেকে কিছুটা হলেও ছাড় দিয়েছে। বৈঠক শেষে উভয় পক্ষই সংবাদমাধ্যমের কাছে ইতিবাচক মনোভাবই প্রকাশ করেছে। সমঝোতা হয়ে গেলেই বাংলাদেশ সফরের জন্য জোরদার প্রস্তুতি শুরু করবে স্মিথ-ওয়ার্নাররা।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 130 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ