সরকারি স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনা ছিল ৫ জঙ্গির

Print

সোমবার দিবাগর রাতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ও উত্তর বাড্ডা থেকে আটক ৫ ‘জঙ্গি’র মিরপুর ও কাফরুল এলাকার সরকারি স্থাপনায় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল বলে দাবি করছে র‌্যাব।
মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি-অপারেশন্স) কর্নেল আনোয়ার লতিফ খান বলেন, ‘৫ জনের মধ্যে দু’জন প্রকৌশলী রয়েছেন। তারা সবাই একটি সেলের সদস্য। প্রায় সোয়া এক বছর তারা একত্রিত হয়ে নাশকতার পরিকল্পনা করছিলেন। তাদের সদস্য সংখ্যা ১০-১২ জন। এদের অধিকাংশই মিরপুর ও কাফরুল এলাকার বাসিন্দা।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘এই সেলের নিয়ন্ত্রক অলিউজ্জামান ওরফে অলি। এই জঙ্গি সেলটি মিরপুর ও কাফরুল এলাকার একটি সরকারি স্থাপনায় নাশকতার পরিকল্পনা করেছে। এই নাশকতার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তারা মনির এবং সালমান ওরফে আবদুল্লাহকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। তাদের দু’জনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’
কোন সরকারি স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনা ছিল- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সুনির্দিষ্টভাবে স্থাপনার নাম বলা যাবে না। তাহলে সেখানকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করতে পারে।’
সোমবার দিবাগত রাতে র‌্যাব যাদের আটক করেছে তারা হলেন- অলিউজ্জামান ওরফে অলি (২৮), আনোয়ারুল আলম (২৯), সালেহ আহাম্মেদ শীষ (২২), আবুল কাশেম (২৭) এবং মো. মোহন ওরফে মহসিন (২০)।
তাদের কাছ থেকে খেলনার পিস্তল, বোমা তৈরির সরঞ্জাম ও ‘উগ্রপন্থী বই’ উদ্ধার করা হয়েছে।
র‌্যাবের এডিজি জানান, আসামিদের মধ্যে অলিউজ্জামান ২০১২ সালে বুয়েট থেকে ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করেন। বর্তমানে তিনি একটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কর্মরত। ২০১৫ সালের শেষে সে সারোয়ার-তামিম গ্রুপে অন্তর্ভুক্ত হয়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 90 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ