সাকিবও সেই আগের বোলার নেই

Print

কদিন আগেই বিশ্ব সেরা টেস্ট অলরাউন্ডারের জায়গাটা পুনরুদ্ধার করেছেন। তিন সংস্করণের ক্রিকেটেই এখন সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। কিন্তু হলে কি হবে। সাকিব কি আর সেই আগের বোলার আছেন! এমনই আক্ষেপ বাংলাদেশের লঙ্কান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের।
গলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজের প্রথমটিতে ২৫৯ রানে হার বাংলাদেশের। অথচ এবারের শ্রীলঙ্কা সফরকে বাংলাদেশের জন্য সেরা সুযোগ বলছিলেন অনেকে। স্বাগতিক দলটা যে অনেকটা অনভিজ্ঞ। কিন্তু গলে বড় হার আশার পালে ধাক্কা হয়েই এসেছে। হাথুরু তাই কলম্বোয় শততম টেস্টের আগে উল্টো কথাই বলছেন, ‘আমাদের বোলিং আক্রমণ খুবই অনভিজ্ঞ। টেস্ট ক্রিকেটে পায়ের নিচে জমি খুঁজে পেতে চাইছে একটি দল। সেই দলের কাছে আমরা একটু বেশিই চেয়ে ফেলছি। ২০টি উইকেট নেওয়ার পথ খুঁজে বের করতে হবে আমাদের।’

হাথুরুর কণ্ঠে আসলে টেস্টে বাংলাদেশের পুরো বোলিং আক্রমন নিয়েই হতাশা। সেই হতাশ কণ্ঠে বেরিয়ে এলো সাকিবকে নিয়ে আক্ষেপ, ‘এই বোলিং আক্রমণ থেকে সাকিবকে বাইরে রাখুন। দেখবেন বাকি চার বোলারের সম্মিলিত অভিজ্ঞতা মাত্র ১৫ টেস্ট। সাকিবও সেই আগের বোলার নেই। ২০১০ সালে বিরুদ্ধ কন্ডিশনেও সে প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দিত। কিন্তু এখন সেই সাকিব কোথায়?’
গল টেস্টে দুই ইনিংস মিলিয়ে সাকিবের উইকেট ৩টি। প্রথম ইনিংসে ১ উইকেট নেয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে নেন ২ উইকেট। ব্যাট হাতেও সুবিধা করতে পারেননি। প্রথম ইনিংসে ২৩ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে দলের প্রয়োজনের সময় ফিরেছেন মাত্র ৮ রান করে। সর্বশেষ ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের সিরিজেও ২ উইকেটের বেশি পাননি সাকিব। নিউজিল্যান্ড সিরিজে দুই টেস্ট মিলিয়ে উইকেট নিয়েছিলেন ৬টি। তবে ব্যাট হাতে ওয়েলিংটনে করেছিলেন দুর্দান্ত এক ডাবল সেঞ্চুরি।
বাংলাদেশ কোচের সাকিবকে নিয়ে এই হতাশা কি শুধুই দলের পরাজয়ের বেদনা থেকে? নাকি অন্য কোন কারণে? মন্তব্যটা যেহেতু সাকিবকে নিয়ে। নানা প্রশ্ন তাই ডানা মেলতেই পারে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 121 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ