সিআইডিকে গণজাগরণ মঞ্চের আল্টিমেটাম

Print

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যার এক বছরেও মামলার দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় প্রশাসনকে সময় বেঁধে দিয়ে আল্টিমেটাম দিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ কুমিল্লা শাখা।সোমবার সাড়ে ১১টায় গণজাগরণ মঞ্চ কুমিল্লা শাখা সিআইডিকে ১০ দিনের সময় বেঁধে দিয়ে স্মারণকলিপি প্রদান করা হয়েছে। এরপর ওই কর্মসূচি অবগতির জন্য কুমিল্লা পুলিশ সুপারের বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন গণজাগরণ মঞ্চের কুমিল্লা জেলার মুখপাত্র খায়রুল আনাম রায়হান, নারী সংগঠক মমতা রায়হান মম, কবি ও লেখক সৈয়দ আহাম্মদ তারেক, নাবিল হাসান অনিমেশ, খন্দকার মহিবুল হক।

গণজাগরণ মঞ্চের কুমিল্লা জেলার মুখপাত্র খায়রুল আনাম রায়হান সাংবাদিকদের বলেন, হত্যার একবছরেও হত্যার কোনো অগ্রগতি প্রকাশ করতে পারেনি সিআইডি। এ প্রতিবাদে তথ্য অধিকার আইনে তদন্তের অগ্রগতি জানতে চেয়েছি। সেই সঙ্গে আমরা একটি দাবি উত্থাপন করেছি। আগামী ১০ দিনের ভেতর যদি কোনো দৃশ্যমান অগ্রগতি উল্লেখ করতে না পারে তাহলে ২ এপ্রিল থেকে লাগাতার আন্দোলন গড়ে তুলবো।
তিনি আরও বলেন, কুমিল্লা প্রেসক্লাব থেকে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিভিন্ন স্কুল-কলেজে ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে জনসচেতনা সৃষ্টি করে লাগাতার আন্দোলন নামবো। আমরা আশা করি অচিরেই তনু হত্যাকরীদের শনাক্ত করে খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।
এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ ডিগ্রী শাখায় ছাত্র-ছাত্রীরা তনু হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেন।
কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরের একটি জঙ্গল থেকে গত বছরের ২০ মার্চ রাতে তনুর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরদিন তার বাবা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহায়ক ইয়ার হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। থানা পুলিশ ও ডিবির পর গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 76 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ