সুদিনের সুবাস পাচ্ছেন সৌম্য

Print

খারাপ সময় সবারই আসে। তাই বলে গালমন্দ করা কতটা সমুচিত। হ্যাঁ, যৌক্তিক সমালোচনায় দোষের কিছু নেই। কথায় আছে, আজ তোমার, কাল আমার। সৌম্য সরকার, মোটেও খারাপ ক্রিকেটার না!
অনেক প্রতিভার ভিড়ে নিজের শক্তিমত্তা আর সামর্থ্যের জানান দিয়েই লাল-সবুজের জার্সি গায়ে জড়িয়েছেন তিনি। ভুললে চলবে না, ক্রিকেটে ‘ফর্মহীনতা’ নামে বেরসিক একটি কক্ষ রয়েছে। সেই কক্ষে আজ সৌম্য পড়লে কাল তামিম পড়বেন। এটাই স্বাভাবিক।

তবে এবার বোধ হয় সৌম্যর ‘দুঃখের দিন’ শেষ হলো। সবশেষ পাঁচটি ইনিংসে চোখ বুলালে তাঁকে নিয়ে গালমন্দ করার উপলক্ষ খুঁজে পাবে না নিন্দুকেরা-৩৯, ৪২, ৮৬, ৩৬, ৫২। ব্যাটিং গড়-৫১। এমন পরিসংখ্যান ঘেঁটে বলাই যায়, অমানিশার আঁধার কাটিয়ে সুদিনের সুবাস পাচ্ছেন সৌম্য।
বারবার দলে সুযোগ পেয়েও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি সৌম্য সরকার। আলোচনার টেবিলে নাম লেখান তিনি। চারদিকে সৌম্যকে নিয়ে নিন্দার ঝড় উঠে। তবুও নির্বাচকরা তাঁর ওপর ভরসা রাখেন। মাথা নিচু করে নীরবে-নিভৃতে সৌম্যও সয়েছেন সব যাতনা।
নিজের ওপর আস্থা রেখে নিউজিল্যান্ড সফরে পা বাড়ান তিনি। ব্যাট হাতে প্রথম ওয়ানডেতে এক রান করার পর তাঁকে ছেঁটে ফেলে নির্বাচকরা। সৌম্যর বদলে যাকে দলে নেয়া হয়েছিল তিনিও দলের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনতে পারেননি।
ওয়ানডে সিরিজ এভাবেই শেষ হলো। বেজে উঠল টি-টোয়েন্টির দামামা। সৌম্যকে আবারও দলে টানল টিম ম্যানেজমেন্ট। খুব একটা হতাশ করেননি তিনি। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ২৬ বলে ৩৯ এবং তৃতীয় ম্যাচে দলকে উপহার দেন ২৮ বলে ৪২ রান। মূলত তাতেই ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত সৌম্যর।
টেস্টে আরও উজ্জ্বল সৌম্যর ব্যাট। এক টেস্টের দুই ইনিংস খেলে ঝুলিতে পুরেন ১২২ রান। যেটি তাঁর পেছনের টেস্ট ক্যারিয়ারকে ছাড়িয়ে গেছে।
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সাদা পোশাকে ৩ ম্যাচে ১০৭ রান ছিল সৌম্যর ঝুলিতে। ব্যাটিং গড় ২১.৪০। সর্বোচ্চ রান ৩৭। ম্যাচের পর সেটি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ ম্যাচে ২২৯ রান। ব্যাটিং গড় ৩২.৭১। সর্বোচ্চ রান ৮৬।
বল হাতে নিয়মিত নন তিনি। মাঝে মধ্যে পার্ট টাইম বোলার হিসেবে তাঁকে কাজে লাগানো হয়। তাই সৌম্যর শিকারে উইকেট নেই বললেই চলে। তারপরও ১২৫ রানের বিপরীতে রয়েছে ১টি উইকেট।
গতকাল রোববার একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে ভারতীয় ‘এ’ দলের বিপক্ষে নিজেকে আরও একবার প্রমাণ করলেন সৌম্য। হায়দরাবাদের সিকান্দারাবাদের জিমখানা গ্রাউন্ডে ব্যাট হাতে তুলে নিলেন অর্ধশতক। ৯ চার ১ ছয়ে ৬০ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন তিনি।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 97 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ