স্বামীর ছুরিকাঘাতে ব্যাংক কর্মকর্তা নিহত

Print

রাজধানীর ধানমন্ডিতে সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে আরিফুন্নেছা আরিফা (২৭) নামে যমুনা ব্যাংকের এক কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন।বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সেন্ট্রাল রোড আইডিয়াল কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আরিফা জামালপুর সদর উপজেলার আনিসুজ্জামান হেলালের মেয়ে। তিনি ধানমন্ডির সেন্ট্রাল রোড আইডিয়াল কলেজের পাশে ভাড়া থাকতেন।
নিহতের ভাই আহমেদ আলামিন বুলবুল জানান, ৪ বছর আগে জামালপুরের রবিনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক করে বিয়ে হয় আরিফার। ২ মাস সংসার করার পর রবিন মাদকাসক্ত হয়ে পড়লে সে আরিফার উপর নির্যাতন শুরু করে। আরিফা নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ৬ মাস আগে ডিভোর্স দেয়।
ডিভোর্স দেওয়ার পর রবিন প্রায়ই তাকে বিরক্ত করত। জীবনের নিরাপত্তা ছিলনা। নিরাপত্তার জন্য পুলিশের সহযোগিতা চেয়ে কলাবাগান থানায় একটি সাধারন ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন। এরপরও বাঁচতে পারলেন না আরিফা।
আজ সকালে আরিফা তার কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য বের হন। আইডিয়াল কলেজের সামনে পৌঁছলে রবিন তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাকে ধানমন্ডি সেন্ট্রাল হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক ডা. জেসমিন নাহার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘাড়ে বড় ধরনের আঘাত পাওয়ার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।
কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসির আরাফাত জানান, আরিফা খুন হওয়ার স্থানটির সিসি ক্যামেরা আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে আমরা দেখতে পাই আরিফা ও রবিন কিছু মালামাল নিয়ে বাসায় ঢুকছে ও বের হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, বিবাহ বিচ্ছেদের পরও হয়ত তাদের মধ্যে আবার ভাল সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তবে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রবিনকে আটকের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 257 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ