হাইকোর্টের আদেশে ঝালকাঠির পোনাবালিয়া ইউপি নির্বাচন স্থগিত

Print

ত্রুটিপূর্ন ভোটার তালিকার ভিত্তিতে নির্বাচনের অভিযোগ
হাইকোর্টের আদেশে ঝালকাঠির পোনাবালিয়া ইউপি নির্বাচনী তফসিল ১০ দিনের জন্য স্থগিত


আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:: ত্রুটিপূর্ন ভোটার তালিকার ভিত্তিতে ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল মঙ্গলবার উচ্চ আদালত ১০ দিনের জন্য স্থগিত ঘোষনা করেছে। মঙ্গলবার মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি মোঃ নাইম হায়দার ও বিচারপতি আবু তাহের মোঃ সাইফুর রহমান এর সমান্বয় গঠিত যৌথ বেঞ্চ গত ০৯ মার্চ ২০১৭ তারিখ ঘোষিত এ নির্বাচনী তফসিল স্থগিতাদেশ দেন। একই সাথে ৭নং পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ‘৭ ও ৯নং ওয়ার্ডের ভোটার তালিকা কেনো অসুদ্ধ ও আইনগত বিধি বহির্ভূত ঘোষনা করা হবেনা’ তার কারন দর্শানোর জন্য মহামান্য হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছেন। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ভোটার তালিকা অসুদ্ধ ও আইনগত বিধি বহির্ভূত দাবী করে পোনাবালিয়া ইউনিয়নের বসিন্ধা আঃ জলিল খান সহ ৩জন বিক্ষুদ্ধু হয়ে মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে এ রিটপিটিশন (নং-৩৭৫১) দায়ের করেন।
পিটিশনারের পক্ষে তার আইনজীবী ব্যারিষ্টার তৌফিক এনাম জানান, বিগত ২০১১ সালের ২১ মার্চ মহামান্য এপিলেড ডিভিশন এক আপিল (নং-৪৬৩) আদেশে ৬৭২জন ভোটারকে পোনাবালিয়া ইউনিয়নের কিস্তাকাঠি গ্রামের আওতাভূক্ত করার জন্য আদেশ দিলেও নির্বাচন কমিশন তাদের ভোটার তালিকার অন্তর্ভূক্ত না করায় এবং অশুদ্ধ, অসম্পূর্ন ও নির্বাচনী আইনের বিধি ৪ লংঘন করে ঘোষিত ভোটার তালিকা অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গত ০৯ মার্চ ২০১৭ তারিখ সদর উপজেলার ৭নং পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন’২০১৭ অনুষ্ঠানের তফসিল ঘোষনা করেন। এতে ক্ষতিগ্রস্থরা বিক্ষুদ্বু হয়ে মাহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের একটি যৌথ বেঞ্চে একটি রীট পিটিশন দায়ের করলে শুনানীঅন্তে ‘ঘোষিত তফসিল ১০ দিনের জন্য স্থগিত ঘোষনা’ করেন। সেই সাথে ‘ভোটার তালিকা কেনো অসুদ্ধ ও আইনগত বিধি বহির্ভূত ঘোষনা করা হবেনা’ সে বিষয়ে আইন সচিব, নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার, কমিশনার ও সচিব, আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার, জেলা নির্বাচন অফিসার, জেলা প্রশাসক ঝালকাঠি, পুলিশ সুপার ঝালকাঠি, উপজেলা নির্বাচন অফিসার এবং রিটানিং অফিসার ৭নং পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন’২০১৭ ও উপজেলা নির্বাচন অফিসারকে কারন দর্শানোর নির্দেশ দেন।
এ ব্যাপারে রীটপিটিশন দায়েরকারী ৩ জনের মধ্যে অন্যতম ৯নং ওয়ার্ডের ৪বার নির্বাচিত জনপ্রিয় ইউপি সদস্য ও বর্তমান নির্বাচনের অন্যতম প্রার্থী মোহাম্মদ আলি হাওলাদার জানায়, তিনি নুরুল্লাহপুর গ্রামের বাসিন্দা হিসাবে গত ৪টি ইউপি নির্বাচনে সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। বর্তমানে নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পর গত ১৫ মার্চ উপজেলা নির্বাচন অফিসের সরবরাহকৃত ৯নং ওয়ার্ডের ভোটার তালিকায় তার নাম নেই দেখে হতভাগ ও বিস্মিত হয়ে যান। তাৎক্ষনিক তিনি বিষয়টি নিয়ে ৭নং পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন’২০১৭ এর রিটানিং অফিসারের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাচন অফিসার আফরোজা বেগমের স্মরনাপন্ন হয়ে বিষয়টি জানান। রিটানিং অফিসার তাকে মনোনয়নপত্র ক্রয় করতে বলে ভোটার তালিকা সংশোধন করে তার নাম অন্তর্ভূক্ত করার জন্য বিষয়টি ঢাকা নির্বাচন কমিশনে প্রেরন করেছেন বলে জানান।
তিনি আরো বলেন, রিটানিং অফিসারের আশ্বাসের ভিত্তিতে তিনি ঘাষিত তফসিল অনুযায়ী গত ১৮ মার্চ তিনি মনোনয়নপত্র ক্রয় করে বিধি অনুযায়ী ব্যাংক ড্রাফ সহ অন্যান্য কাগজপত্র সহ মনোনয়ন জমা দানের শেষ দিন গত ২০ মার্চ রিটানিং অফিসারের কাছে গেলে তিনি ‘নির্বাচন কমিশন থেকে ভোটার তালিকায় নাম সংশোধন হয়ে আসেনি, তাই তার মনোনয়নপত্র গ্রহন করা সম্ভব নয়’ বলে জানালে তিনি মানষিক ভাবে ভেঙ্গে পরেন। যে কারনে বাধ্য হয়ে তিনিও মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে এ রীট পিটিশন দায়ের করেছেন। তিনি ভোটার তালিকা ব্যাপক ত্রুটির অভিযোগ তুলে শুধুমাত্র ৯নং ওয়ার্ডের আরো শতাধিক লোকের ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভূক্ত করা হয়নি বলে তিনি জানান।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 272 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ