অবশেষে জয় পেল তামিমের চিটাগং

Print

%e0%a6%85%e0%a6%ac%e0%a6%b6%e0%a7%87%e0%a6%b7%e0%a7%87-%e0%a6%9c%e0%a7%9f-%e0%a6%aa%e0%a7%87%e0%a6%b2-%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a6%bf%e0%a6%ae%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%9a%e0%a6%bf%e0%a6%9fবিপিএলের টানা চারটি ম্যাচে হারের পর অবশেষে কাঙ্ক্ষিত জয়ের দেখা পেয়েছে তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস। মোহাম্মদ নবী ও তাসকিন আহমেদের দারুণ নৈপুণ্যে রাজশাহী কিংসকে হারিয়েছে ১৯ রানের ব্যবধানে। ১৯১ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে রাজশাহীর ইনিংস থেমে গেছে ১৭১ রানে। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের সেরা বোলিং করে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন তাসকিন।

ব্যাট হাতে অবশ্য শুরুটা ভালোই হয়েছিল রাজশাহীর। উদ্বোধনী জুটিতেই ৪৪ রান জমা করেছিলেন মুমিনুল হক ও জুনায়েদ সিদ্দিকী। পঞ্চম ওভারে ২২ রান করে মুমিনুল আউট হয়ে গেলেও জুনায়েদ উইকেটে টিকে ছিলেন আরো চার ওভার। দশম ওভারের প্রথম বলে আউট হওয়ার আগে তিনি খেলেছেন ২৮ বলে ৩৮ রানের লড়াকু ইনিংস। এরপর দলের হাল ধরেছিলেন সাব্বির রহমান ও উমর আকমল। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তাঁরা যোগ করেছিলেন ৩৪ রান। ১৪তম ওভারে সাব্বির আউট হয়ে যাওয়ার পরই অনেকটা ম্লান হয়ে যায় রাজশাহীর জয়ের আশা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৬ রানের ইনিংসটি এসেছে সাব্বিরের ব্যাট থেকে। আকমল তার আগেই আউট হয়ে গিয়েছিলেন ২১ রান করে। শেষপর্যায়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখেই পড়েছিল রাজশাহী কিংস। শেষ পাঁচ ওভারে তারা হারিয়েছে পাঁচটি উইকেট। স্কোরবোর্ডে যোগ করতে পেরেছে ৪১ রান। অধিনায়ক ড্যারেন স্যামির ১৪ ও ফরহাদ রেজার ৯ রানের ছোট ইনিংস দুটি রাজশাহীর হারের ব্যবধানটাই শুধু কমাতে পেরেছে।

চিটাগংয়ের পক্ষে দারুণ বোলিং করে পাঁচটি উইকেট নিয়েছেন তাসকিন। চার ওভার বল করে দিয়েছেন ৩১ রান। ২৮ রানের বিনিময়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন পাকিস্তানের পেসার ইমরান খান। একটি করে উইকেট গেছে মোহাম্মদ নবী ও গ্রান্ট এলিয়টের ঝুলিতে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মোহাম্মদ নবীর ৩৭ বলে ৮৭ ও এনামুল হকের ৫০ রানের ইনিংসে ভর করে স্কোরবোর্ডে ১৯০ রান জমা করেছিল চিটাগং ভাইকিংস।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 57 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ