আমি নির্দোষ : বদরুল

Print

%e0%a6%86%e0%a6%ae%e0%a6%bf-%e0%a6%a8%e0%a6%bf%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a6%e0%a7%8b%e0%a6%b7-%e0%a6%ac%e0%a6%a6%e0%a6%b0%e0%a7%81%e0%a6%b2সিলেটে কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের ওপর হামলাকারী ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত নেতা বদরুল আলম নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন।
আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে সরকারপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) মফুর আলীর প্রশ্নের জবাবে বদরুল এমন দাবি করেন।
বদরুলের উদ্দেশে পিপি বলেন, ‘আপনার বিরুদ্ধে ৩২৬ ও ৩০৭ ধারায় চার্জ (অভিযোগ) গঠন করা হবে। আপনি কি দোষী?’
পিপির ওই প্রশ্নের জবাবে বদরুল বলেন, ‘তখন আমার সেন্স ছিল না। আমি অসুস্থ ছিলাম। দুই-তিন দিন পর আমি সুস্থ হলে বুঝি কাজটি ঠিক করি নাই।’
এর পর পিপি বদরুলের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনি দোষী না নির্দোষ?’
‘আমি নির্দোষ’, বলেন বদরুল।
পিপির জেরার পর সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক সাইফুজ্জামান হিরো অভিযোগ গঠন করেন। একই সঙ্গে মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ শুরুর দিন ৫ ডিসেম্বর নির্ধারণ করেন।
এর আগে বদরুলের আইনজীবী সাজ্জাদুর রহমান তাঁর জামিন আবেদন করেন। বিচারক তা নাকচ করে দেন।
গত ৩ অক্টোবর এমসি কলেজে পরীক্ষা দিয়ে বের হওয়ার সময় সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগের সাবেক সহসম্পাদক বদরুল আলম। এ ঘটনায় খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে বদরুলকে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করেন।
এর পর গত ৫ অক্টোবর বদরুল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে তাঁকে কারাগারে প্রেরণ করেন আদালত। ঘটনার পর শাবিপ্রবি থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয় বদরুলকে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 147 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: