ইন্টারনেট খরচ কমাবেন যেভাবে

Print

%e0%a6%87%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%a8%e0%a7%87%e0%a6%9f-%e0%a6%96%e0%a6%b0%e0%a6%9a-%e0%a6%95%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%ac%e0%a7%87%e0%a6%a8-%e0%a6%af%e0%a7%87%e0%a6%adযুগের সাথে পাল্লা দিয়ে স্মার্টফোনে ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়ছে। মোবেইল অপারেটররা ব্রডব্যান্ডের মতো সস্তায় ডাটা ব্যবহার না করতে দেয়ায় হিসাব করেই ব্যবহার করতে হচ্ছে।
তবে কিছুটা কৌশলী হলে স্মার্টফোনে সাশ্রয়ী উপায়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করা সম্ভব। এক্ষেত্রে কোন অ্যাপ কতটুকু ডাটা খরচ করছে, তা জানা থাকলে ভালো।
প্রথমেই যেটা করবেন,
অ্যাপ্লিকেশন কাজ : এ ক্ষেত্রে বেশি ডাটা লাগে এমন অ্যাপ্লিকেশন কাজ শেষে বন্ধ রাখতে হবে। চাইলে স্মার্টফোনের সেটিংস থেকেও অ্যাপের জন্য ডাটা ব্যবহারের পরিমাণ কমিয়ে দেওয়া যায়। বড় আকারের সফটওয়্যারগুলোর স্বয়ংক্রিয় আপডেট বন্ধ রাখা উচিত। বড় আকারের অ্যাপের আপডেট বা ডাউনলোডের ক্ষেত্রে ওয়াই-ফাই সংযোগ ব্যবহার করা উচিত।
মাই ডাটা : মাই ডাটা ম্যানেজার নামে অ্যানড্রয়েড ও আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের জন্য একটি অ্যাপ রয়েছে। এটি ওয়াইফাই ও থ্রিজি ব্যবহারের সময় ডাটা খরচের হিসাব রাখতে সাহায্য করবে। ফলে ইন্টারনেটে ডাটা খরচের কোনো তথ্য গোপন থাকবে না।
ক্লাউড : বর্তমানে ক্লাউড সুবিধা বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। স্মার্টফোনে ছবি তোলা হলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপলোড হয়ে যায় অনলাইনে। এতে ডাটার ব্যবহার হয়। ডাটার পরিমাণ আনলিমিটেড না হলে গুগল ড্রাইভ, ওয়ানড্রাইভ, ড্রপবক্সের মতো ক্লাউড সুবিধাগুলোর অনলাইন ব্যাকআপ বন্ধ রাখতে হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 75 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ