ইমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল সম্পর্কে ৪ প্রচলিত ভুল ধারণা

Print

imageআপনি কি অবাঞ্ছিত গর্ভপাতের ভয় পান? অথচ এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল সম্পর্কে সঠিক তথ্য না জানায় নির্ভয়ে ব্যবহারও করতে পারেন না? কন্ট্রাসেপটিভ পিল সম্পর্কে আমাদের ধারণা স্পষ্ট হলেও এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল সম্পর্কে প্রচলিত অনেক ধারণাই আসলে মিথ। জেনে নিন এমনই কিছু মিথ ও সঠিক তথ্য।

গর্ভপাত

এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল অবাঞ্ছিত প্রেগন্যান্সি রুখতে পারে। কিন্তু কখনই গর্ভপাত ঘটাতে পারে না। মিলনের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল খেলে গর্ভধারণ রুখে দিতে পারবেন। কিন্তু যদি আপনি প্রেগন্যান্ট হয়ে পড়েন তাহলে এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল গর্ভপাত ঘটাতে পারবে না।

সময়

এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল মিলেনর পরই খেয়ে নেওয়া উচিত্। ২৪ ঘণ্টা পর খেলে তা আর কার্যকর হবে না। এমন ধারণা প্রচলিত রয়েছে। প্রকৃতপক্ষে এই পিল ৭২ ঘণ্টার মধ্যে খেলেই কার্যকর হয়।

ভরসাযোগ্যতা

এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল গর্ভধারণ রুখতে ভরসাযোগ্য হলেও সব দিক থেকে দেখতে গেলে তা কখনই রুটিন কন্ট্রাসেপটিভের থেকে বেশি সুরক্ষিত নয়। তাই চিকিত্সকরা সব সময়ই রুটিন কন্ট্রাসেপটিভের ওপর জোর দেন।

 

কন্ডোম

অনেকেই কন্ডোমের ওপর চোখ বুজে ভরসা করেন। কিন্তু মিলনের সময় কন্ডোম ফেটে যাওয়ার ঘটনার সংখ্যাও কম নয়। তাই সন্দেহ হলেও কন্ডোম ছিল বলে হাত গুটিয়ে বসে থাকবেন নায় যদি প্রেগন্যান্ট হতে না চান তাহলে অবশ্যই এমার্জেন্সি কন্ট্রাসেপটিভ পিল খেয়ে নিন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 159 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ