এক্সপোর্ট ইমপোর্ট লাইসেন্স করার নিয়ম কি?

Print

Untitled

যদি ঢাকাতে থাকেন তা হলে আপনাকে সিটিকর্পোরেশন থেকে লাইসেন্স ফি জমা দিয়ে ট্রেড লাইসেন্স নিতে হবে…নিদিষ্ট ফি ছাড়াও আপনাকে আপনার ব্যবসার ধরন অনুযায়ী ফি দিতে হবে যেমন আমদানী কারক এর ফি, রপ্তানী করকের ফী এই ভাবে যোগ করে আপনাকে সোনালী ব্যংকের নিদিষ্ট কয়েক টা শাখায় জমা দিতে হবে এই ব্যপারে আপনে আপনার এলাকার সিটিকর্পোরেশন অফিসের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।
নতুন লাইসেন্স ফিঃ ২২৫০ টাকা +সাইবোর্ড কর ৩৭৫ টাকা +নতুন বই ১০০ টাকা+সার চার্জ ৫৬৩+ব্যংক ৫ টাকা+
আপনি যদি সরাসরি নিজ দ্বায়িতে এই সব লাইসেন্স করতে যান তা হলে আপনাকে অনেক জামেলায় পড়তে হবে। আপনে এই বিষয় গুলো মতিঝিলে সিটি সেন্টারের বিপরীতে চা-বোর্ড অফিসে সাথে রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরো সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। এই খানে আরো উল্লেখ্য যে আমদানী রপ্তানী ব্যবসা শুরু করার পূর্বে আপনেক অবশ্যই যে কোন চ্যম্বারের সদস্য হতে হবে…এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে এফবিসিসিআই, বাংলাদেশ ইন্ডেন্টিং এসোশিয়েশন…ইত্যাদি…
আমদানী নিবন্ধন ফি ১৫,২০০ টাকা (সর্বোচ্চ ১ কোটি টাকা) প্রতি বছর দিতে হবে ১৭,৭০০
রপ্তানী নিবন্ধন ফি ৩,২০০ টাকা ……
আর আপনে যদি ইনডেন্টিং ব্যবসা করেন তা হলে
ইনডেন্টিং নিবন্ধন ফি ২৫,২০০ টাকা………
এবং এসব ফি দিতে হবে বাংলাদেশ ব্যংকে বা সোনালী ব্যংকে এবং নিদিষ্ট চালান ফর্মে

 

আমাদের দেশে আমদানি এবং রপ্তানি এই দুই কাজের জন্য সরকার বিশেষ দুই লাইসেন্স দিয়ে থাকে এক্ষেত্রে আপনি দেশে আমদানি এবং রপ্তানি যোগ্য যেকোনো পণ্য যেকোনো পরিমাণে আনতে বা বাইরে পাঠাতে পারবেন। আর এই লাইসেন্স করার ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি অনেক স্বচ্ছ এবং নিরাপদ। নিচে বিস্তারিত দেয়া হলো।

আমদানি নিবন্ধন সনদপত্র ও রপ্তানি নিবন্ধন সনদপত্র জারির জন্য আপনার যা যা লাগবে-

১) ট্রেড লাইসেন্স;
২) চেম্বার অথবা স্বীকৃত ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনের বৈধ সদস্যতা সনদপত্র;
৩) টিআইএন;
৪) ব্যাংক প্রত্যায়ন পত্র;
৫) লিমিটেড কোম্পানীর ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রার, জয়েন্ট স্টক কোম্পানী কর্তৃক অনুমোদিত সংঘ স্মারক ও সংঘবিধি এবং সার্টিফিকেট অব ইনকর্পোরেশন।

উপরের সব কাগজ পত্র যদি আপনার করা থাকে তবে তা নিয়ে আপনি তিন ঘন্টার মধ্যে অর্থাৎ একই দিনে আমদানি ও রফতানি সনদ জারি করিয়ে নিতে পারবেন।

আমদানি রপ্তানি কারকদের জন্য ৬টি ধাপে আমদানি রপ্তানি সীমার উপর ফিস প্রদান করতে হয়ঃ

১) ১ লক্ষ টাকার সমমান পণ্য এর ক্ষেত্রে
Registration fee -১,০০০
Renewal fee – ১,০০০

২) ৫ লক্ষ টাকার সম পরিমান পণ্য এর ক্ষেত্রে
Rgistration fee – ২,০০০
Renewal fee – ২,০০০

৩) ১৫ লক্ষ টাকার সম পরিমান পণ্য এর ক্ষেত্রে
Registration fee – ৩,০০০
Renewal fee – ৩,০০০

৪) ৫০ লক্ষ টাকার সম পরিমান পণ্য এর ক্ষেত্রে
Registration fee ৬,০০০
Renewal fee – ৫,০০০

৫) ১ কোটি টাকার সম পরিমান পণ্য এর ক্ষেত্রে
Registration fee – ১০,০০০
Renewal fee – ৪,০০০

৬) ১ কোটির উপরে পরিমান পণ্য এর ক্ষেত্রে
Registration fee – ১৫,০০০
Renewal fee – ১০,০০০

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 604 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: