‘গুম ছিনতাইয়ে পুলিশের সম্পৃক্ততা শুভকর নয়’

Print

%e0%a6%97%e0%a7%81%e0%a6%ae-%e0%a6%9b%e0%a6%bf%e0%a6%a8%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%87%e0%a7%9f%e0%a7%87-%e0%a6%aa%e0%a7%81%e0%a6%b2%e0%a6%bf%e0%a6%b6%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%b8%e0%a6%aeবাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, ছিনতাই, গুমসহ অনেক ঘটনার সঙ্গেই পুলিশের সম্পৃক্ততার খবর পাওয়া যাচ্ছে। যা আমাদের জন্য শুভকর নয়। শনিবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে ‘মানবাধিকার ও পরিবেশ রক্ষায় প্রশাসনের ভূমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।
মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের যুগপূর্তি উপলক্ষে দুইদিন ব্যাপি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, দেশের ৭০ থেকে ৭৫ ভাগ অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে দারিদ্রতার কারণে। দারিদ্রতা দূর করতে পারলেই অপরাধের সংখ্যা অনেকাংশে কমে যাবে। দারিদ্রতা দূর করতে চাই দূর্নীতিমুক্ত প্রশাসন।
তিনি বলেন, আজকে ১৬ কোটি মানুষের দেশে কর দেন মাত্র ১৫ লাখ লোক, যা খুবই সামান্য। শতভাগ কর আদায় করতে পারলেও দেশের দারিদ্রতা অনেকাংশ কমে যাবে।
পুলিশ ক্ষমতার অপব্যবহার করছে অভিযোগ করে আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ছিনতাই, গুমসহ অনেক ঘটনার সঙ্গেই পুলিশের সম্পৃক্ততার খবর পাওয়া যাচ্ছে। যা আমাদের জন্য শুভকর নয়। দেশে অনেক গুম,খুন হচ্ছে কিন্তু মানবাধিকার সংগঠনগুলো এর প্রতিবাদ করছে না। তিনি মানবাধিকার সংগঠনগুলোকে মতলবি সংগঠন হিসেবে অ্যাখ্যায়িত করে বলেন, এসব সংগঠন যে সরকারই ক্ষমতায় থাকে তাদের পদলেহন করে।
আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য অনেকটা দায়ী উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক সুপ্রিম কোর্টে আগাম জামিন বন্ধ করে দিয়েছেন। এতে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে। একটি ঘটনায় শতাধিক নিরীহ লোককে আসামি করে মামলা দিচ্ছে পুলিশ। এতে মূল আসামির সঙ্গে নিরপরাধ আরো অনেক মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছেন।
সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মঞ্জিল মোরশেদ বলেন, প্রতিদিন যদি ১০টি করে মামলা জনস্বার্থে করা যায় তাহলে দেশে বিপ্লব ঘটে যাবে। আদালত রায় দেন কিন্ত রায় বাস্তবায়ন করার দায়িত্ব প্রশাসনের। কিন্তু প্রশাসন যদি সেটা না করেন তাহলেই কেবল আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হয়। মানবাধিকার রক্ষায় আইনজীবীসহ প্রশাসনের সকলকে রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার। সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ড. বশির আহমেদ, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, অ্যাডভোকেট শ.ম রেজাউল করিম, অ্যাডভোকেট এএম আমীন উদ্দিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এবিএম ফারুক, নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ, সাবেক মেজর জেনারেল আব্দুর রশিদ প্রমুখ।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 49 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
error: