ঝালকাঠিতে ড্যান কেক খেয়ে নারী-শিশু সহ ৫ জন অসুস্থ

Print

vagal-pic

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:: ঝালকাঠিতে ড্যান ফুড লিঃ এর মেয়াদ উত্তীর্ন ড্যান কেক খেয়ে শহরের ষ্টেশন রোডের বাসিন্দা জেলা ছাত্র সমাজের সভাপতি আশরাফুর রহমান শাকিল ও তার পরিবারের নারী-শিশু ও মেহমানসহ ৪জন অসুস্থ হয়ে পরেছে। এঘটনায় অসুস্থ হওয়া এক পরিবারের ৩জনকে স্থানীয় চিকিৎসক ডাক্তার শাহআলম ও তাদের বাসায় আগত অতিথি কে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।এ বিষয়ে আইনগত প্রতিকার চেয়ে রবিবার শাকিল ঝালকাঠি পৌরমেয়র ও থানায় লিখিত অভিযোগ প্রদান করলে পৌর স্যানিটারী ইনপেক্টর মোঃ সালাম কোম্পানীর গোডাউনে অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু মেয়াদ উত্তীর্ন ড্যান কেক জব্দ করেছে। অন্যদিকে ঝালকাঠি থানার অফিসার ইনচার্জের নির্দেশে অভিযোগটি সাধারন ডায়রী (জিডি নংÑ১২১৬) হিসাবে নথিভূক্ত করেছে। এছাড়াও এ অস্বাস্থকর খাদ্য বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবহৃত ট্রেড লাইসেন্সটি মেয়াদোত্তীর্ন ও জালিয়াতী পূর্ন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।
লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, জেলা ছাত্র সমাজের সভাপতি আশরাফুর রহমান শাকিল গত শনিবার রাতে শহরের একটি দোকান থেকে ড্যান ফুড লিঃ এর দুটি ড্যান কেক কিনে বাসায় যায়। রাতে বাসায় প্রতিবেশী জাকির হোসেন শামীম (৩৫), বেড়াতে আসলে শাকিল (৩০), তার বোন ফারজানা রহমান পাপরি (২৭), তার ভাতিজা আবির রহমান (৮) ও তার মা ফিরোজা বেগম (৬০)সহ ৫ জনে সেই কেক খাওয়ার পর তারা সকলেই অসুস্থ হয়ে পরে। রাতেই তাদের পেটে ব্যাথ্যা ও ডিহাইড্রেশন শুরু হলে রাতেই তারা চিকিৎসকদের কাছে ছুটে যায় এবং উত্তীর্ন উক্ত ড্যান কেক খাওয়ার তার বিষক্রিয়ায় কারনে তাদের এ অসুস্থতা দেখা দিয়েছে বলে ডাক্তাররা জানায়।
অন্যদিকে পৌরমেয়রের কাছে লিখিত অভিযোগের পর তার নির্দেশে পৌর স্যানিটারী ইনপেক্টর মোঃ সালাম ও রোড ইনপেক্টর আলমগীর হোসেন ড্যান ফুড লিঃ এর ডিষ্ট্রিবিউটর শহরের মনোহরি পট্রি মেসার্স আমির এন্ড ব্যাদার্স এর মালিক নিজাম উদ্দিনের অফিসে অভিযান চালিয়ে তাদের গোডাউন তল্লাশী করে বিপুল পরিমান মেয়াদোত্তীর্ন মেয়াদ উত্তীর্ন ড্যান কেকসহ খাদ্য সামগ্রীর সন্ধান পায়। এসময় ডিষ্ট্রিবিউটরের কাগজপত্র পরীক্ষা করে ২০০৮ সালে ট্রেড লাইসেন্স করার পর আর বার্ষিক রেন্যুয়াল করা হয়নি বলে প্রতিয়মান হয়। এমন কি জালিয়াতীর মাধ্যমে ট্রেড লাইসেন্সটি ফ্লুইড দিয়ে মুছে ২০১৫-২০১৬ মেয়াদ পর্যন্ত রেন্যুয়াল দেখানো হয় বলে ধরা পরে। এ ব্যাপারে পৌর কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা পূর্বক পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সংম্লিষ্টরা জানায়।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 73 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ