‘ঢাকাকে যানজট ও হকারমুক্ত করার ওয়াদা করছি’

Print

%e0%a6%a2%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%af%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a6%9c%e0%a6%9f-%e0%a6%93-%e0%a6%b9%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a6%ae%e0%a7%81%e0%a6%95%e0%a7%8dঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশেনের (ডিসিসিসি) মেয়র আনিসুল হক বলেছেন, আমাদের শহরকে বাসযোগ্য করে তুলতে কাজে নেমেছি। ঢাকাকে যানজট ও হকারমুক্ত করবো নগরবাসীর কাছে ওয়াদা করেছি। যদিও এর কোনোটিই করার এখতিয়ার মেয়রের নেই। এ কাজে সাফল্যের জন্য প্রয়োজন সবার সহযোগিতা।
মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির বার্ষিক সাধারণ সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
অানিসুল হক বলেন, অনেকে জনগণের চলাচলের রাস্তা দখল করে বাড়ি বানিয়েছেন। আমরা রাস্তার দখল ছেড়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলাম, তারা শোনেননি। এরপর রাতের বেলা বুলডোজার চালিয়ে সিটি করপোরেশনের জায়গা উদ্ধার করেছি।
অবৈধ দখলে থাকা প্রতি ইঞ্চি জায়গা উদ্ধার করা হবে জানিয়ে ডিসিসিসি মেয়র বলেন, আমি বর্তমানে দুই ধরনের দখলদাদের সঙ্গে বসবাস করছি। এক ধরনের দখলদার গরিব, যারা ফুটপাত দখল করেছে, যাদের পুলিশ তাড়ায়। আরেক ধরনের দখলদার ধনী। যারা সরকারের জায়গা দখল করে বাড়ি বানায়, গ্যারেজ বানায়। যারা উল্টো পুলিশকে তাড়ায়। সবার সহযোগিতা পেলে দখলদারদেরক কাছ থেকে জমি উদ্ধার সফল হবো বলে আশা করি।
তিনি বলেন, ঢাকা শহরের পরিবেশ এতই খারাপ যে, ২৫ শতাংশ শিশুর ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এর থেকে পরিত্রাণের উপায় হিসেবে ঢাকাকে ক্লিন করতে হবে। তিনি আরও বলেন, উন্নয়নের স্বার্থে কিছু গাছ কাটা হচ্ছে ঠিকই, তবে গত এক বছরের ৩২ হাজার গাছ লাগিয়েছি। আগামী দুই বছরের আরও ৫ লাখ লাগানোর পরিকল্পনা আছে। এটি করতে পারলে আশা করছি ঢাকা শহরের যে তাপমাত্রা বর্তমানে বিরাজমান তার ৪ থেকে ৫ ডিগ্রি কমবে।
আনিসুল হক বলেন, আমি ওয়াদা করেছি, ঢাকাকে যানজট ও হকারমুক্ত করব। যদিও কোনোটিই করার এখতিয়ার মেয়রের নেই। তবে সবার সহযোগিতায় এগুলো করার চেষ্টা করছি। অনেকে রাস্তা দখল করে বাড়ি বানিয়েছেন। রাস্তা দখল ছেড়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলাম, তারা শোনেননি। এরপর রাতের বেলা বুলডোজার চালিয়ে সিটি করপোরেশনের জায়গা উদ্ধার করেছি।
তিনি বলেন, আমরা ঢাকাকে বিলবোর্ড মুক্ত করেছি। বিলবোর্ডোর পেছনে এতো বড় শক্তি কাজ করে তা আগে জানতাম না। গত ৪ মাসে ২০ হাজার বিল বোর্ড ফেলে দিয়েছি। মানুষ এখন কথা শুনছে। ঢাকাকে সুন্দর করতে এবং সুন্দর রাখতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। মেয়রের পক্ষে একা কিছুই করা সম্ভব নয় যদি আপনারা সহযোগিতা না করেন।
ডিআরইউ সভাপতি জামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী পর্বে ডিআরইউয়ের বর্তমান ও সাবেক নেতারা বক্তব্য রাখেন।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 57 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ