নবীগঞ্জের ইমাম ও বাওয়ানী চা বাগানে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট

Print

বকেয়া বেতন-ভাতা’সহ বিভিন্ন দাবীতে নবীগঞ্জের ইমাম ও বাওয়ানী চা বাগানে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট

0301

সানিউর রহমান তালুকদার, নবীগঞ্জ থেকে॥ নবীগঞ্জ উপজেলার ইমাম ও বাওয়ানী চা- বাগানে বকেয়া বেতন- ভাতা’সহ বিভিন্ন দাবী নিয়ে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেছে শ্রমিকরা। তাদের ন্যায্য বকেয়া বেতন ভাতা না পাওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট প্রত্যাহার করবেন না বলে জানিয়েছেন শ্রমিক নেতারা। সরেজমিনে গিয়ে শ্রমিকদের সাথে আলাপকালে জানাযায়, নবীগঞ্জ উপজেলার পানিউমদা ইউনিয়নে অবস্থিত ইমাম-বাওয়ানী চা বাগানের প্রায় সাড়ে ৪ শত শ্রমিকদের এরিয়া বিলসহ বকেয়া বেতনের প্রায় ২৫ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে। বকেয়া বেতন আদায় ও অন্যান্য দাবী বাস্তবায়নের জন্য কোম্পানীর উপ-মহাপরিচালক বরাবরে বিগত ১০ অক্টোবর আবেদন করে শ্রমিকরা। এরই প্রেক্ষিতে গত ১৬ই নভেম্বর উক্ত বকেয়া বিল পরিশোধের আশ্বাস দেয় কর্তৃপক্ষ। নির্ধারিত সময়ে বকেয়া বেতন- ভাতা না দেয়ায় গত মঙ্গলবার থেকে চা বাগানের শ্রমিকরা অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয়। গতকাল বুধবার ২য় দিনের মতো ধর্মঘট চলছে। ফলে কোম্পানীর প্রতি দিন ক্ষতি হচ্ছে কয়েক লক্ষাধিক টাকা। অধিকার আদায়ের দাবীতে ধর্মঘটে যাওয়ায় পরিবার পরিজনদের নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন চা শ্রমিকরা। ইমাম চা বাগানের সভাপতি নির্মল রবি দাশ ও বাওয়ানী চা বাগানের শ্রমিক সমিতির সভাপতি স্বাধন মালাকার জানান, কোম্পানীর কর্তৃপক্ষ দীর্ঘ দিন ধরে আমাদের বকেয়া বেতন-ভাতা নিয়ে টালবাহানা শুরু করেছে। ঘর বাড়ি মেরামত করে দেয়ার কথা থাকলে কিছুই হচ্ছে না। আমরা অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত রয়েছি। তাই বাধ্য হয়ে আন্দোলনের পথ বেচে নিয়েছি। দাবী না মানলে ঘরে ফিরবো না।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 46 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ