পাকিস্তানে হচ্ছে প্রথম হিজড়াবান্ধব মসজিদ

Print

%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a6%bf%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%87-%e0%a6%b9%e0%a6%9a%e0%a7%8d%e0%a6%9b%e0%a7%87-%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%a5%e0%a6%ae-%e0%a6%b9পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে প্রথম হিজড়াবান্ধব মসজিদ তৈরির পরিকল্পনা নিয়েছে হিজড়াদের অধিকার বিষয়ক একদল কর্মী। সকল লৈঙ্গিক বৈষম্যের বাইরে যাতে মানুষ মসজিদে প্রবেশ করতে পারে এজন্যই এই মসজিদ তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানা যায়।
সফর নামে হিজড়াদের অধিকার বিষয়ক সংস্থাটির প্রধান নাদিম খাশিশ জানান, “এই সমাজের মানুষদের একটা বার্তা দেয়ার জন্যই মূলত এই মসজিদ তৈরি করা হচ্ছে। যারা হিজড়া তারাও যে মুসলিম এটা বোঝানোর জন্যই। তাদেরও অধিকার আছে মসজিদে গিয়ে প্রার্থনা করার, পবিত্র কোরান পাঠ করার।”
মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ পাকিস্তানে হিজড়াদের এখনও ধরতে গেলে নাগরিক অধিকার দেয়া হয়নি। সফর সংস্থায় প্রায় দুই হাজার ৭০০ জন হিজড়া রয়েছেন, যারা শুধু ইসলামাবাদকে কেন্দ্র করেই থাকেন। যদিও সরকারি হিসেব মোতাবেক ইসলামাবাদে হিজড়াদের সংখ্যা প্রায় আড়াই হাজার।
সারাবিশ্বেই হিজড়াদের সামাজিকভাবে হেয় করে দেখা হয়। একই অবস্থা পাকিস্তানেও। বেশ কয়েকবার পাকিস্তানে হিজড়াদের উপর রক্তক্ষয়ী হামলাও হয়েছে। পরিবার এবং সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে নৃত্য, যৌনপেশা, ভিক্ষাবৃত্তি থেকে শুরু করে বিভিন্ন কাজ করে নিজেদের ভরণপোষণের ব্যবস্থা করতে হয় তাদের।
সামাজিক বৈষম্য সম্পর্কে বলতে গিয়ে খাশিশ আরো বলেন, “এমন বৈষম্য আমাদের নিজেদেরকেই লজ্জায় ফেলে দেয়। যে মুহূর্তে আমরা জন্মেছিলাম ওই মুহূর্তটিকেই তখন অভিশপ্ত মনে হয়।”

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 101 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ