পাবলিক টয়লেট না থাকায় প্রশ্রাব সারছে মহাসড়কে

Print

জয়দেবপুর চৌরাস্তায় পাবলিক টয়লেট না থাকায় নিরুপায় মানুষ প্রশ্রাব সারছে মহাসড়কে

 20160513_163348[1]

গাজীপুর দর্ণ রিপোট: র্গাজীপুর মহানগরের ব্যাস্ত এলাকা জয়দেবপুর চৌরাস্তা। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চান্দনা চৌরাস্তায় প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মানুয়ের যাওয়া-আসা। এখানে পাবলিক টয়লেট না থাকায় বিপুলসংখ্যক মানুষ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে প্রশ্রাব করে মহাসড়কের উপর উন্মুক্ত স্থানে। এ অবস্থা চলছে কয়েক বছর যাবৎ।

সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, দূরপথের মানুষ পরিবহনে কয়েক ঘন্টার যাত্রা শেষে গাড়ী থেকে নামে জয়দেবপুর চৌরাস্তায়। প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার মাঝেই সুখ- আর দীর্ঘসময় চেপে রাখারই অস্বস্তি-যন্ত্রণার। এমন অবস্থায় বেকায়দায় পরে মানুষ মল ত্যাগ করে গাজীপুর সড়ক ও জনপথ অফিসের সীমানা প্রাচীর ঘেষে মহাসড়কের উপর। জয়দেবপুর চৌরাস্তার এই জায়গায় সারাক্ষণ দায়িত্ব পালন করে পুলিশের সদস্যরা। একজন পুলিশ সদস্য জানান, এখানে দূর্গন্ধে শ্বাস বন্ধ হয়ে আসে, নাক-মুখ চেঁপে ডিউটি করতে হয়। শুক্রবার বিকেলে রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে কয়েকজন প্রশ্রাব করছিলেন। এরই একজন আক্রাম হোসেনের সাথে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে কথা হয় গাজীপুর দর্পণ পত্রিকার এই প্রতিবেদকের সাথে। তিনি জানান, ভাই ময়মনসিংহ থেকে বাসে এসে জয়দেবপুর চৌরাস্তায় নেমে প্রশ্রাব করার কোনো টয়লেট না পেয়ে বাধ্য হয়ে এখানে প্রশ্রাব করেছি। তার মতো প্রতিদিনই হাজার হাজার মানুষ এভাবে প্রশ্রাব সাড়ছে।
চৌরাস্তা এলাকার বাসিন্দা ইত্তেফাক পত্রিকার সাংবাদিক মো: মজিবুর রহমান জানান, সড়ক প্রসস্ত হওয়ার আগে একটি পাবলিক টয়লেট ছিল, এখানে একটি পাবলিক টয়লেট নির্মাণের জন্য প্রশাসনের কাছে অনেক বার বলা হয়েছে। জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায়ও বিষয়টি উত্থাপন করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসনের উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভার সুত্রে জানা যায়, উন্নয়ন সমন্বয় কমিটিতে সিন্ধান্ত হয়েছে, বিআরটি প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ শুরু হলে চান্দনা চৌরাস্তার নিকটবর্তী সুবিধাজনক স্থানে পাবলিক টয়লেট নির্মাণ করা হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 32 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ