ভোটে দাঁড়াতে মেয়র আইভীর পদত্যাগ

Print

%e0%a6%ad%e0%a7%8b%e0%a6%9f%e0%a7%87-%e0%a6%a6%e0%a6%be%e0%a6%81%e0%a7%9c%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a7%87-%e0%a6%ae%e0%a7%87%e0%a7%9f%e0%a6%b0-%e0%a6%86%e0%a6%87%e0%a6%ad%e0%a7%80%e0%a6%b0-%e0%a6%aaনির্বাচনে অংশ নিতে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। দুপুরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে তিনি এই পদত্যাগপত্র পাঠান।
স্থানীয় সরকার নির্বাচনের বিধিমালা অনুযায়ী নির্বাচিত মেয়র পরবর্তী নির্বাচনে অংশ নিতে হলে তাকে আগেই পদত্যাগ করতে হয়। আইভী জানান, ২২ ডিসেম্বরের ভোটে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন। এ জন্য তিনি পদ ছেড়েছেন।
২০১১ সালের অক্টোবরের মেয়র নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী শামীম ওসমানকে এক লাখ দুই হাজার ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে মেয়র হন আইভী। সে সময় আওয়ামী লীগের সমর্থন না পেয়েও নির্বাচনে অংশ নেন তিনি। তবে পাঁচ বছর পর আইভীকেই প্রার্থী ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ।
আইভীর আশা, গতবারের মতো এবারও নারায়ণগঞ্জের ভোটাররা তাকেই বেঝে নেবেন। তিনি বলেন, ‘আমি পাঁচ বছর সিটি করপোরেশনের কাজ করেছি। দায়িত্বে ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা করিনি। শতভাগ ট্যাক্স আদায় করতে পারিনি-এটা আমার ব্যর্থতা। তবে যে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড করেছি, তা বিবেচনা করে আমার বিশ্বাস জনগণ আমার পক্ষে রায় দেবে।’
আইভী বলেন, ‘উন্নয়নের দাবি নিয়েই আমি মানুষের কাছে যাবো। আগামীবার নির্বাচিত হলে আমি কী করবো, সে বিষয়টিও তুলে ধরবো।’
গত নির্বাচনের আগে দেওয়া প্রতিশ্রুতির কতগুলো পূরণ হয়েছে-জানতে চাইলে আইভী বলেন, ‘৬০ ভাগ প্রতিশ্রুতির কাজ শেষ করেছি। কিছু কাজের কিছু টেন্ডার হয়েছে, কিছু কাজ এখনও শুরু করা যায়নি।’
প্রতিশ্রুতির শতভাগ কেন পূরণ হয়নি-জানতে চাইলে আইভী বলেন, ‘অনেক বাধা ব্পিত্তি ছিল, রাজনৈতিক সমস্যা ছিল, যে কারণে কাজ করতে বিলম্ব হয়েছে।’
এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেও নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে যে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল তাতে আইভীর নাম ছিল না। পরে আইভীকে মনোনয়ন দেওয়া হলেও নারায়ণগঞ্জে প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান ও তৃণমূলের পক্ষ থেকে পাঠানো প্রস্তাবে নাম থাকা তিন নেতা আইভীর পক্ষে নেই।
মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জের সব নেতার সঙ্গে বৈঠক করে আইভীর পক্ষে থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তবে পরদিন তাদের কাউকে নারায়ণগঞ্জে দেখা যায়নি।
আগের রাতে বৈঠকে থাকা নেতারা কেন আপনার পাশে নেই-জানতে চাইলে আইভী বলেন, ‘আমি আজ এসেছি অফিস করতে। তারা এখানে কী করবেন? যখন নির্বাচনের প্রচারে নামবো, তখন তারা আমার পাশে থাকবেন।’

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 55 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ