যে ৬টি খাবার অনেকক্ষণ আপনার পেট ভরিয়ে রেখে ওজন কমাতে সাহায্য করবে

Print

ক্ষুধা কি শুধু শারীরিক অনুভূতি? একদমই না। সুস্বাদু কোন খাবার আমাদের চোখের সামনে আসলেও আমাদের খাওয়ার ইচ্ছা জাগে। স্বাস্থ্যকর ক্ষুধা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল। কিন্তু যখন তখন ক্ষুধা লেগে যাওয়া বা খাওয়ার ইচ্ছা কখনও ভাল নয়।

ক্ষুধা বৃদ্ধি অস্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা, স্ট্রেস, উদ্বিগ্নতা, হতাশা ইত্যাদি বিভিন্ন মানসিক কারণ জড়িত। হঠাৎ করে আপনার ওজন বৃদ্ধি শুরু হয়েছে। আপনি কি জানেন এই ক্ষুধা বৃদ্ধি অনেকখানি দায়ী আপনার ওজন বৃদ্ধির জন্য? এমন কিছু খাবার আছে যা আপনার পেটকে দীর্ঘক্ষণ ভরিয়ে রাখার পাশাপাশি আপনার ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে।

১। ওটস

সকালটা শুরু করুন এক বাটি ওটস দিয়ে। এটি সারাদিনের কাজের শক্তি দিয়ে থাকে। এটি ছয় সপ্তাহের মধ্যে আপনার কোলেস্টেরল মাত্রা ৫% পর্যন্ত কমিয়ে দেবে। শুধু তাই নয় দীর্ঘক্ষণ আপনার পেট ভরিয়ে দেবে এই একটি খাবার।

২। আপেল

আপেল দ্রবণীয় আঁশ সমৃদ্ধ খাবার যা অতিরিক্ত খাওয়া প্রতিরোধ করে। আপেলে ক্যালরির পরিমাণ কম পানির পরিমাণ বেশি হওয়ার কারণে এটি ওজন বৃদ্ধি না করে শরীরে এ্যার্নাজি বৃদ্ধি করে থাকে। দীর্ঘ সময় ক্ষুধা নিবারণের জন্য এই ফলটি বেশ কার্যকর।

৩। ডিম

প্রোটিনের অন্যতম উৎস ডিম। এতে থাকা গ্রেরলিন উপাদান ক্ষুধা নিবারণ করে থাকে। সিদ্ধ ডিম খাওয়ার চেষ্টা করুন।

৪। কলা

একটি মাঝারি আকৃতির কলায় সারাদিনের ভিটামিনের ৩০% পর্যন্ত পূরণ করে থাকে। এটি মস্তিষ্কে সেরোটোনিন নামক হরমোন উৎপাদন করে, যা মানসিক চাপ, উদ্বেগ হ্রাস করে থাকে। তাই সকালের নাস্তায় একটি কলা রাখুন।

৫। কাঠবাদাম

কাঠবাদামে মোনোস্যাচুরেটেড এবং পলিয়োনস্যাটিটেড নামক স্বাস্থ্যকর ফ্যাট রয়েছে যা অতিরিক্ত খাওয়া দমন করে থাকে। ২০০৬ সালে Obesity Society Annual Scientific Meeting করেছেন, কাঠবাদাম আপনার ওজন হ্রাস করতেও সাহায্য করে।

৬। গ্রিণ টি

চা খাওয়ার অভ্যাস থাকলে দুধ চায়ের পরিবর্তে গ্রিণ টি খাওয়ার অভ্যাস করুন। এর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। আপনার মেটাবলিজমের হারকে বৃদ্ধি করে রক্তচাপ নিয়মিত রাখে।

এছাড়া টকদই, পানি, মাশরুম, সবুজ শাক সবজি আপনার ক্ষুধা দীর্ঘক্ষণ নিবারণ করবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 19 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ