যৌনতাকেও ছাড়িয়ে গেছে ওয়াইফাইয়ের চাহিদা!

Print

%e0%a6%af%e0%a7%8c%e0%a6%a8%e0%a6%a4%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a7%87%e0%a6%93-%e0%a6%9b%e0%a6%be%e0%a7%9c%e0%a6%bf%e0%a7%9f%e0%a7%87-%e0%a6%97%e0%a7%87%e0%a6%9b%e0%a7%87-%e0%a6%93%e0%a7%9f%e0%a6%beআধুনিক সময়ের খুবই প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে ওয়াইফাই। কোনো ধরনের তার ছাড়া ইন্টারনেটে সংযুক্ত হয়ে পড়ার সুযোগটা পছন্দ করে সবাই। ওয়াইফাই এখন নাগরিকজীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ। কোথাও বেড়াতে গেলেও প্রথম মাথায় আসে ওয়াইফাইয়ের প্রসঙ্গটি। আপনার রেস্টুরেন্ট, গাড়ি, অফিস বা বাসায় ওয়াইফাই সুবিধা আছে তো?
সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা যায়, দিনের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় জিনিসের মধ্যে প্রতি দশজনে চারজন সেক্স, চকোলেট বা অ্যালকোহলের চেয়ে ওয়াইফাইকে প্রাধান্য দিচ্ছে।
ওয়াইফাই সংযোগ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান আইপাস ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের ১৭০০ জন কর্মজীবীর ওপর জরিপ চালায়। দৈনন্দিন জীবনে গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনের তালিকা করতে বলা হয় তাদের। এক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চারটি কাজ এবং কম গুরুত্বপূর্ণ চারটি কাজের নাম বাছাই করতে বলা হয়। প্রত্যেকটির জন্য ১-৪ মান নির্ধারণ করা হয়। প্রাত্যহিক প্রয়োজনের তালিকায় ওয়াইফাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা পায়। জরিপে উত্তরদাতাদের মধ্যে ৪০.২%-এর কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিসের স্থান পায় ওয়াইফাই। সেক্সকে গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে ৩৬.৬%-এর কাছে আর চকোলেট ও অ্যালকোহল গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে ১৪.৩% লোকের কাছে। আর সে তালিকায় নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন জিনিস গুরুত্ব পেয়েছে ৮.৯% লোকের কাছে।
ওয়াইফাই সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান আইপাসের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা প্যাট হিউম বলেন, ‘ওয়াইফাই শুধু এখন সবচেয়ে জনপ্রিয় ইন্টারনেট সংযোগকারী পদ্ধতিই নয়, বরং প্রয়োজনের দিক থেকে এটা মানুষের বিলাসদ্রব্য বা নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের প্রয়োজনীয়তাকেও ছাড়িয়ে গেছে।’

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 68 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ