সংসার ভাঙার পর যেভাবে প্রেম

Print

'২০ বছরের সংসার ভাঙার পর যেভাবে প্রেম খুঁজে পাই'

বছর চারেক আগে আমার বিশ বছরের সংসার ভেঙে যায়। এটা নিঃসন্দেহে এক দুঃখজনক ঘটনা। আর আমি নিশ্চিত, এমন ঘটনা ঘটার পেছনে আমার একার দায় নেই। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে আমি পড়েছি। এই ৪৩ বছর বয়সে আমাকে ভাবতে হয়েছে, এখন কি হবে?

প্রথমে আমার বন্ধুরা মনে করেছিল, আমি খুব শিগগিরই ডেটিং শুরু করবো। আমার স্বামীর কাছে আমি মূল্যহীন হয়ে পড়েছিলাম। তাই আমার নিজেকে জীবিত বল মনে করা দরকার ছিল।

আমি অনলাইনে কয়েকটি ডেটিং অ্যাপ খুঁজে পাই। আমি দেখতে চেয়েছিলাম পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে এই অ্যাপ আমাকে কোথায় নিয়ে যায়। দুই সপ্তাহে আমার দুটো ডেট হয়ে গেলো। একজন হলেন আমার মনের মতো। তার বয়স ৫১ বছর। আমার চেয়ে সামান্য বড়।

একদিন তিনি আমাকে বললেন, একটা কথা বলা দরকার। আমার বয়স আসলে ৫১ নয়। আমার বয়স ৫৭ বছর। আমি জানালাম, আমি আসলে একজন ভালো মানুষের সন্ধান করছি। আপনি যদি ইচ্ছুক থাকেন তো আমার সঙ্গে দেখা করতে পারেন।

বিকাল সাড়ে ৫টায় আমাদের দেখা হলো। তাকে ৫৭ বছরের মনে হলো না, মনে হলো তার বয়স ৭৫।

তিনি আমাকে ঘুরতে নিয়ে যেতে চাইলেন। এরপর বিভিন্ন বিষয়ে কথা হলো। জানালেন যে তিনি ওয়াল্ট ডিজনিতে খোদ ডিজনির সঙ্গে কাজ করেছেন। খাওয়ার সময় তার আচার-আচরণের অবাক হলাম আমি।

তার মা হাসপাতালে অসুস্থ। তাকে নিয়ে কথা বললাম। আমি তাকে বললাম তাহলে এখানেই আমাদের ডেটিং শেষ হোক। আপনি রাতে না হয় মাকে দেখতে যান। তিনি অবাক হলেন, তবে ‘না’ করলেন না। পরে তার সঙ্গে আর যোগাযোগ করলাম না।

এর পর আরেকজনের সন্ধান মিলল। লোকটার প্রোফাইলে এমন কিছু ছিল যা আমাকে আকষর্ণ করেছিল। কিন্তু আমি যেমন মানুষের সঙ্গে ডেটিং করতে চাই, তিনি তার থেকে ভিন্ন। প্রোফাইলে দেখলাম তিনি জার্মান। তাকে ই-মেইল করলাম। নিজেদের সম্পর্কে কিছু মৌলিক তথ্য আদান-প্রদান চললো। সেই সময় তিনি অন্য কারো সঙ্গে ডেটিং করছিলেন।

আমরা দেখা করার সিদ্ধান্ত নিলাম। আমাদের লাঞ্চ ৪ ঘণ্টা স্থায়ী হলো। দুজন প্রচুর কথা বললাম। এটাই আমার প্রথম সফল ডেটিং। আমরা আরো কয়েকবার দেখা করলাম। চার বছর ধরে চলছে। স্টিফেন এখন কম্পিউটার প্রোগ্রামার হিসাবে কাজ করেন। সাপ্তাহিক ছুটিতে আমরা বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে যাই।

অনলাইন ডেটিং থেকে একটা জিনিসই শিখেছি। তা হলো, এখানে ধৈর্য্য ধরতে হবে এবং অপশনগুলো ব্যবহার করতে হবে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 69 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ