সাব্বির-আল আমিনের পর নারী কেলেঙ্কারিতে ব্রাভো!

Print

%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%ac%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%b0-%e0%a6%86%e0%a6%b2-%e0%a6%86%e0%a6%ae%e0%a6%bf%e0%a6%a8%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%aa%e0%a6%b0-%e0%a6%a8%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%80একের পর এক ধাক্কা খাচ্ছে বিপিএল। কদিন আগে নিজ দলের বিপক্ষে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ আনেন বরিশাল বুলসের ব্র্যান্ড আম্বাসেডর ও কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর। রংপুরের ম্যানেজার সানোয়ারের বিপক্ষেও রয়েছে এমন অভিযোগ।তবে ম্যাচ ফিক্সিং ছাপিয়ে এখন আলোচনায় ক্রিকেটারদের নারী কেলেঙ্কারির বিষয়।
হোটেলে রুমে মেয়ে নিয়ে অনৈতিক কার্যকলাপের জন্য সাব্বিরকে প্রায় ১৩ লাখ ও আল আমিনকে সাড়ে ১২ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বিসিবি। নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে রংপুরের অলরাউন্ডার জুপিটার ঘোষের বিরুদ্ধেও। এ কারণে তাকে দল থেকে বহিষ্কারও করেছে রংপুর টিম ম্যানেজমেন্ট।

এবার নারী কেলেঙ্কারিতে নাম আসলো ঢাকা ডায়নামাইটসের ওয়েস্টইন্ডিায়ান অলরাউন্ডার ডোয়েন ব্রাভোর। বিশ্বস্ত সূত্র থেকে জানা গেছে বিষয়টি। তবে সাব্বিরদের মতো হোটেলে মেয়ে নিয়ে আসেননি, মিরপুর হোম অব ক্রিকেটের কোনো রুমে কোনো এক মেয়ের সঙ্গে নাকি অসামাজিক কার্যকলাপে জড়ান ব্রাভো। বিষয়টি এখন তদন্ত করছে বিপিএলের জন্য গঠিত বিশেষ অ্যান্টি করাপশন টিম। কার্যত এদের তীক্ষ্ণ নজরেই ধরা পড়ে ডিজে ব্রাভোর কুকীর্তি। এই টিমের রিপোর্টের ভিত্তিতেই সাব্বির ও আল আমিনকে বিশাল অঙ্কের জরিমানা করা হয়।
জানা গেছে, দোষ প্রমাণ হলে মোটা অঙ্কের টাকা জরিমানা করা হতে পারে ব্রাভোকে। চলতি বিপিএলে একের পর এক নেতিবাচক ঘটনায় বিব্রত বিসিবি। তাই দেশি হোক বা বিদেশি হোক, কাউকেই ছাড় দিবে না দেশের ক্রিকেট সংস্থা।
২০১২ সালে সফলভাবে প্রথম আসর শেষ হলেও দ্বিতীয় আসরে ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ডে ক্ষতবিক্ষত হয় বিপিএল। ম্যাচ গড়াপেটার কারণে একবছর বন্ধ থাকে বিপিএল। ২০১৫ সালে তৃতীয় আসর সফলভাবে শেষ হলেও চলতি আসরে একের পর নেতিবাচক ঘটনা ঘটছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 224 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ