সৌম্যকে নিয়ে সেই একই প্রশ্ন, একই উত্তর

Print

%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a7%97%e0%a6%ae%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%a8%e0%a6%bf%e0%a7%9f%e0%a7%87-%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a6%87-%e0%a6%8f%e0%a6%95%e0%a6%87-%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0সৌম্য ব্যাটেও সৌম্য হয়ে আছেন। কিন্তু দরকার রুদ্র মূর্তির। শুধু ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচটাই ব্যতিক্রম, এর বাইরে এবারের বিপিএলে বাকি পাঁচ ম্যাচেই জিতেছে রংপুর। পয়েন্ট তালিকায় সবার ওপরে সৌম্য-রুবেল-আফ্রিদিদের দল। কাল শীর্ষে থাকার লড়াইয়ে খুলনা টাইটানসকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে রংপুর। সবই খুশির খবর। তবে এর মধ্যেও কেবল একটাই হয়তো হতাশা রংপুরের—সৌম্য সরকার যে ব্যাট হাতেও সৌম্য হয়ে আছেন। রুদ্র মূর্তির দেখা মিলছে না। রংপুরের আইকন খেলোয়াড় তিনি, অথচ এখন পর্যন্ত ছয় ম্যাচে বাঁহাতি ওপেনারের ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৭৭ রান! তা দলের ওপেনারের এমন ফর্মে কি একটু চিন্তা হচ্ছে রংপুরের?
সৌম্যকে নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে আসলে এই একটাই প্রশ্ন ঘুরেফিরে উঠছে। উত্তরও মোটামুটি একই রকম। ‘সৌম্যের ফর্ম নিয়ে আপনারা চিন্তিত?’ ‘না, আমরা একটু চিন্তিত নই।’ সেই ধারা মেনে কাল সংবাদ সম্মেলনেও রংপুরের জিয়াউর রহমানই বলে গেলেন, ‘ফর্মহীন’ সৌম্যকে নিয়ে তাঁরা বিন্দুমাত্রও ভাবছেন না।
বাজে ফর্মের কারণে ইংল্যান্ড সিরিজে বাংলাদেশ দলে ছিলেন না, সৌম্য ভালো করতে পারেননি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচেও (একটি ওয়ানডে ও দুটি দুই দিনের ম্যাচ)। বিপিএলেও একই। পাওয়ার প্লের ছয় ওভারে স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছড়ানো সৌম্যর দেখা আর পাওয়া গেল কই? প্রথম ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে ২৩ রান, এরপর থেকে সৌম্যর ব্যাট আর হাসছে না। মাঝে মাঝে দু–একটা ইনিংসে আশা জাগিয়ে শুরু করেও থেমে গেছেন ১৫-২০–এর ঘরে। কাল তো আউট হয়েছেন মাত্র ৩ রান করে, ১৩ বল খেলে।
তবে এ নিয়ে রংপুর চিন্তিত নয়। অন্তত জিয়াউর তা-ই বললেন। সংবাদ সম্মেলনে বললেন, ‘সৌম্য ভালো খেলোয়াড়। এখন একটু আউট অব ফর্ম আছে। কিন্তু আমরা সেটা মাথায় নিচ্ছি না। ও নির্ভার আছে। অনুশীলনেও ভালো করছে। আশা করছি, ও দ্রুত ভালো করবে এবং দলে অবদান রাখবে।’
সৌম্যর তেমন অবদান ছাড়াই দল অবশ্য দুর্দান্ত খেলছে। তবে এতেই আনন্দে ভেসে যাচ্ছেন না জিয়াউর, ‘এখন টপে আছি, কিন্তু এখনো ছয়টি ম্যাচ বাকি। অনেক দূর যেতে হবে। আমরা ম্যাচ ধরে ধরে এগোচ্ছি। ম্যানেজমেন্ট যে পরিকল্পনা দিচ্ছে সেভাবেই খেলছি। বোলাররা খুব ভালো করছে। ব্যাটসম্যানরাও।’
তবে এত ভালোর মধ্যেও একটা প্রশ্ন ঘুরে ফিরে আসছে, রংপুরের পুরো ব্যাটিং শক্তির তো পরীক্ষাই হয়নি। চারটি ম্যাচে পরে ব্যাটিং করে জিতেছে রংপুর, তার তিনটিতেই ৯ উইকেটে, কাল জিতেছে সাত উইকেটে। টপ অর্ডারের পরের ব্যাটসম্যানরা তো ব্যাট করার সুযোগই পাচ্ছেন না। কিন্তু টুর্নামেন্টে কখনো দরকার হলে দলের মিডল ও লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানরা পারবেন কি না, সেই প্রশ্নও তাই উঠছে। জিয়াউর এখানেও রংপুর সমর্থকদের শোনাচ্ছেন আশার গান, ‘আমাদের ব্যাটিং ভালো হচ্ছে । ১, ২, ৩ নম্বর ব্যাটসম্যানেরা খুব ভালো করছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ব্যাট করছে। এমনকি আমিও ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাচ্ছি না। তবে আমরা সবাই মানসিকভাবে প্রস্তুত, যেদিন লাগবে সেদিন ব্যাট করতে হবে। সেভাবেই আমরা অনুশীলন করছি।’

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 87 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ