১০ লক্ষণে প্রকাশ পায় প্রেমিক প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নন

Print

 

11সম্পর্কের ক্ষেত্রে মেয়েরা তার প্রেমিকের ওপর সহজে ধৈর্য হারান না। এ বিষয়ে প্রেমিক সিরিয়াস কিনা অথবা প্রতিশ্রুতি দিতে এখনো প্রস্তুত নন ইত্যাদি বিষয় বুঝে ফেলার ক্ষমতা নারীদের রয়েছে। তবে যারা একতরফা প্রেমে অন্ধ হয়ে আছেন তাদের পক্ষে প্রেমিকের মধ্যে কোনো ঝামেলা থাকলে তা শনাক্তের লক্ষণগুলো বুঝতে পারেন না। বিশেষজ্ঞরা ১০টি লক্ষণের কথা তুলে ধরেছেন। এতে বোঝা যাবে প্রেমিক সম্পর্ক নিয়ে সিরিয়াস নন অথবা এখনই কোনো প্রতিশ্রুতি দিতে চাইছেন না।

১. যখন প্রেমিক আপনার প্রতি খেয়াল দেন না, ভালো-মন্দ বোঝার চেষ্টা করেন না তখন তা অর্থবহ। অন্তরঙ্গতা বা আবেগপ্রসূত ভালোবাসা না প্রকাশ পাওয়ার অর্থ, প্রেমিক অন্য উদ্দেশ্যে সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেছেন।

২. সম্পর্কে প্রতিশ্রুতি থাকলে যতটা সম্ভব দুজন একসঙ্গে সময় কাটানোর চেষ্টা করবেন। এমনকি শপিংয়ে গেলেও প্রেমিক সঙ্গ দিতে চাইবেন। কিন্তু ডেটিং ছাড়া প্রেমিকের দেখা মেলে না। তিনি তার মতো সময় কাটাচ্ছেন। এমনটা হলে প্রেমিকার সাবধান হওয়া দরকার।

৩. চোখের আড়াল হলেই মনের আড়াল হয়। সম্পর্কে এমনটা অনুভূত হলে ভাবনার খোরাক রয়েছে। অহরহ দেখা যায়, মেয়েটি গোটা দিন প্রেমিকের একটা ফোন বা মেসেজের অপেক্ষায় সময় কাটান। কিন্তু ওপাশ থেকে কোনো সাড়া শব্দ নেই। এটা নেতিবাচক অর্থ প্রকাশ করছে।

৪. কোনো পার্টিতে মেয়েটিকে নিয়ে গেলেন তার প্রেমিক। কিন্তু সেখানে প্রেমিকাকে সময় দেওয়ার বিষয়ে তিনি উদাসীন। বন্ধু এবং অন্যদের সঙ্গেই দূরে দূরে থাকলেন। এ ক্ষেত্রে মেয়েটিকে নতুন করে ভাবতে হবে, ভুল হচ্ছে নাতো?

৫. জীবনে সাবেক প্রেমিক-প্রেমিকা থাকতেই পারেন। কিন্তু তাদের কথা বলতে বা মুখোমুখি হলে তাদের সঙ্গে প্রেমিকার পরিচয় করিয়ে দিতে চান না তারা। অথবা পরিচিত অন্য কোনো নারীর সঙ্গে প্রেমিকার পরিচয় দিতে চান না। এমনটা হলে সন্দেহের বহু উপাদান রয়েছে।

৬. প্রেমিকের মনটা অন্য কোথাও পড়ে থাকে। কোনোভাবেই তার মনোযোগ আসে না প্রেমিকার প্রতি। হয়তো আনমনে তিনি টেলিভিশনের প্রিয় অনুষ্ঠানটি দেখেই চলেছেন। অথচ সত্যিকার ভালোবাসায় প্রেমিক সব সময় প্রেমিকার প্রতি মনোযোগী।

৭. মেয়েটির যেকোনো প্রয়োজনে বা বিপদে প্রেমিক পাশে থাকবেন। প্রেমিকার মনটা একটু ভালো করতে দূরে কোথাও ঘুরতে নিয়ে যাবেন। ভালো কোনো রেস্টুরেন্টে দুজন খেতে যাবেন। এসব করার ইচ্ছা প্রেমিকের মধ্যে দেখা না গেলে বুঝতে হবে তিনি সিরিয়াস নন।

৮. ভবিষ্যতের কথা ভুলে যান। যদি আগামী ছুটিতে আপনাকে নিয়ে তার কোনো পরিকল্পনা করা কঠিন হয়ে পড়ে অথবা শেষ সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়, তবে লক্ষণ ভালো নয়।

৯. যেকোনো বিষয়ে হয়তো প্রেমিক সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। অথবা বড় ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে তাকে। এসব বিষয় প্রেমিকার সঙ্গে শেয়ার করা সিরিয়াস সম্পর্কের বৈশিষ্ট্য। কিন্তু এসব বিষয় প্রেমিকের এড়িয়ে যাওয়ার অর্থ তিনি মেয়েটিকে আপন করে নিতে পারেননি।

১০. ভবিষ্যৎ নিয়ে বা ভালোবাসার গভীরতা নিয়ে দুজনই মনের কথা একে অপরকে বলেন। কিন্তু প্রেমিক কখনোই তা বলেন না। বরং অস্বাভাবিক বা অসংলগ্ন মানসিক অবস্থায় এগুলো বলেন। এ ক্ষেত্রে তার প্রতি বিরূপ ধারণা করা যৌক্তিক।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 64 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ