শার্শায় বিলুপ্তির পথে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি

Print

মোঃরাসেল ইসলাম,বিশেষ প্রতিনিধি:
সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে শার্শা উপজেলার সাধারণ কৃষকদের জনপ্রিয় গরুর গাড়ি ও গরু দিয়ে ধান মাড়াইয়ের কাজ।

কম খরচে ধান, পাট সহ নানা ফসল মাঠ থেকে বাড়ি এবং বাড়ি থেকে বাজারে নিয়ে যাওয়ার কাজে ব্যবহার হয়ে আসতো ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি।

প্রযুক্তির সাথে হার মেনে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে শার্শা উপজেলার কৃষকের এ জনপ্রিয় মাধ্যম। প্রায় এক যুগ আগেও উপজেলার অধিকংশ কৃষকের বাড়ীতে দেখা যেতো স্বাস্থ্যবান গরুর ও ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি। বর্তমানে ডিজিটাল যুগে প্রযুক্তির কাছে হার মেনে সেই দৃশ্য এখন আর দেখা যায় না।

শার্শা উপজেলার মহিষাকুড়া গ্রামের কৃষক অজিয়ার, রহমান, গোলাম সহ আনেকে বলেন কয়েক বছর আগেও ধান, পাট ও বিভিন্ন সবজি ক্ষেত থেকে বাড়ি ও বাজারে নিয়ে যাওয়ার জন্য গরুর গাড়ির বিকল্প ছিল না। ক্ষেতের ধান কাটার পর এই গাড়িতে করে বাড়ি নিয়ে আসা হত। কিন্তু যুগের পরিবর্তনে ও প্রযুক্তির সাথে তাল মোলাতে না পেরে এবং বিভিন্ন প্রকার যানবহন উদ্ভাবিত হওয়ায় গ্রাম থেকে হারিয়ে যাচ্ছে গরুর গাড়ি।

উপজেলার বালুন্ডা গ্রামের কৃষকরা জানান, আমাদের ঐতিয্য হারিয়ে যাচ্ছে, তবে আধুনিক যাবহন ব্যবহার করায় আমাদের ধান, পাট, সবজি ঘরে ও বাজারে নিয়ে যেতে সময় লাগছে কম। যুগের সাথে তাল মিলাতে গিয়েই তারা ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি ছাড়ছেন বলে জানান।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা কৃষি অফিসের এক কর্মকর্তা বলেন, আধুনিকতার সাথে তাল মিলিয়ে উপজেলার বেশীরভাগ জায়গায় এখন বিভিন্ন ধরনের মটর চালিত যানবহন ব্যবহার করা হচ্ছে, ফলে স্বাভাবিক ভাবেই এই বাঙ্গালীর ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ি বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে।

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 120 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ